ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে শাহবাগে বিক্ষোভ

আগের সংবাদ

ঐশ্বরিয়ার মতো দেখতে পাকিস্তানের আমেনার ছবি ভাইরাল

পরের সংবাদ

৭৬ সৌদি নাগরিকের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১ , ৩:২৭ অপরাহ্ণ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১ , ৩:৩২ অপরাহ্ণ

সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যার ঘটনায় সৌদি আরবের ৭৬ নাগরিকের ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। পাশাপাশি সৌদি আরবের সাবেক এক কর্মকর্তা ও রাজকীয় একটি বাহিনীর ওপর আর্থিক নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ সময় শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন ঘোষিত এক নতুন নিষেধাজ্ঞা নীতির আওতায় পড়েছেন তারা। খবর রয়টার্সের।

বিদেশি সরকারের হয়ে ভিন্নমতালম্বী, অ্যাকটিভিস্ট ও সাংবাদিকদের ওপর হুমকি কিংবা আক্রমণ চালানোর দায়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ‘খাশোগি নিষেধাজ্ঞা’ নামে নতুন এই নীতি ঘোষণা করা হয়েছে। কর্মকর্তারা জানান, কেবল যাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে, তারাই নন, কিছু কিছু ক্ষেত্রে তাদের পরিবারের সদস্যদের ওপরও এই বিধিনিষেধ প্রয়োগ করা হতে পারে।

সাংবাদিক খাশোগিকে হত্যায় যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান অনুমোদন দিয়েছিলেন বলে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা প্রতিবেদন প্রকাশের পরপরই যুক্তরাষ্ট্র এ পদক্ষেপ নিল। প্রতিবেদনে যুবরাজকে সাংবাদিক খুনে দায়ী করা হলেও শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্র সরাসরি তার বিরুদ্ধে কোনো নিষেধাজ্ঞা দেয়নি।

যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রণালয় জানায়, সৌদির র‌্যাপিড ইন্টারভেনশন ফোর্সসহ সাবেক গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের অপরাধী লেনদেন ও সম্পদ জব্দ করা হচ্ছে। যুবরাজের সুরক্ষায় কাজ করে এই অভিজাত বাহিনী। এই র‌্যাপিড ইন্টারভেনশন ফোর্স জবাবদিহি করে একমাত্র যুবরাজের কাছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিংকিন বলেন, জামাল খাশোগির নামে ‘খাশোগি নিষেধাজ্ঞা’ আইন প্রণয়ন করেছে যুক্তরাষ্ট্র। যেসব বিদেশি ভিন্নমতাবলম্বীদের হুমকি দেবে, বা সাংবাদিক এবং তাদের পরিবারকে হয়রানি করবে, এই আইনে তারা যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে পারবেন না।

এক বিবৃতিতে ব্লিংকেন আরও বলেন, বাইরের দেশে বসবাস করা ভিন্নমতাবলম্বী, সাংবাদিক ও মানবাধিকারকর্মীদের হুমকি ও হামলা সৌদি আরবকে বন্ধ করতে হবে। যুক্তরাষ্ট্র তা সহ্য করবে না।

খাশোগি হত্যায় অনুমোদন দেওয়ায় সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে বাংলাদেশ সময় শনিবার মধ্যরাতে প্রথমবারের মতো প্রকাশ্যে অভিযুক্ত করে যুক্তরাষ্ট্র।

এতে বেশ কিছু শাস্তিমূলক পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বললেও তাতে সৌদির প্রভাবশালী যুবরাজকে সরাসরি লক্ষ্যবস্তু করা হয়নি। কিন্তু ২০১৮ সালের ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে জামাল খাশোগিকে নির্মমভাবে হত্যা করে সৌদি গুপ্তচরেরা। যুবরাজের কঠোর সমালোচক খাসোগি যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্টে নিয়মিত লিখতেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের বাসিন্দা হলেও ইস্তানবুলের সৌদি কনস্যুলেটে যেতে তাকে প্রলুব্ধ করা হয়েছিল।

আরআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়