মানবতাবাদী নেতা আলী আহাম্মদ চুনকা

আগের সংবাদ

বিএনপির খেতাবের রাজনীতি

পরের সংবাদ

ঢাকা দক্ষিণ আ.লীগ: সভাপতি-সম্পাদক পদ পাবেন না কাউন্সিলররা

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১ , ৯:৪৭ অপরাহ্ণ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১ , ৯:৪৮ অপরাহ্ণ

রাজধানীর কোনো ওয়ার্ড কাউন্সিলর ঢাকা মহানগরীর ওয়ার্ড ও থানা আওয়ামী লীগের কমিটিতে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদে আর থাকতে পারবেন না। তবে তারা কমিটির অন্যান্য পদে থাকবেন। এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায়। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দিনব্যাপী চলা বর্ধিত সভায় এমন সিদ্ধান্ত যখন নেওয়া হয়, তখন বিদ্যমান ওয়ার্ড ও থানা কমিটির বেশিরভাগ সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ওয়ার্ড কাউন্সিলর।

বেলা ১২টায় শুরু হয়ে এ বর্ধিত সভা চলে রাত পৌঁনে ৯টা পর্যন্ত। রাজধানীর একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সম্মেলন ছাড়া কোনো কমিটি না করার সিদ্ধান্ত # ৩ মাসের ৭৫০ ইউনিট কমিটি, পর্যায়ক্রমে ওয়ার্ড-থানা সম্মেলন

দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহম্মেদ মন্নাফী’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবিরের সঞ্চালনায় বর্ধিত সভায় আরো বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ঢাকা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা মির্জা আজম। বর্ধিতসভায় মহানগরীর নেতারা ছাড়াও ওয়ার্ড ও থানার সভাপতি-সম্পাদকদের অনেকেই বক্তব্য দেন। সভা শেষে দক্ষিণ আওয়ামী লীগের একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন নেতা জানান, দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রেফারেন্স দিয়ে ঢাকার কোনো ওয়ার্ড ও থানা কমিটিতে ওয়ার্ড কাউন্সিলদের না রাখার কথা তুলে ধরেন। তিনি বক্তব্যে বলেছেন, যেহেতু কাউন্সিলররা স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, তাই তাদেরকে দলের মূল পদে না রেখে সেই পদে দলের ত্যাগী অন্যান্য নেতাদের দায়িত্ব দেওয়া যেতে পারে। পরে উপস্থিত সবাই এই সিদ্ধান্তে একমত পোষন করেন।

এছাড়া আগামী তিন মাসের মধ্যে দক্ষিণের প্রতিটি ওয়ার্ডে ১০টি করে ইউনিট কমিটি সম্মেলনের মাধ্যমে গঠন করা হবে। এতে ৭৫ টি ওয়ার্ডে ১০ টি করে মোট ৭৫০ টি ইউনিটে প্রথমে কমিটি গঠন হবে। এরপর ওয়ার্ড ও থানা আওয়ামী লীগের সম্মেলন হবে। তবে সম্মেলন ছাড়া কোথাও কোনো কমিটি না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বর্ধিতসভা।

নতুন ১৮ টি ওয়ার্ডে বর্তমানে কোনো কমিটি না থাকায় খুব শীঘ্রই সেগুলোতে আহ্বায়ক কমিটি গঠন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে সভায়।

আরআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়