সুবর্ণ সময়

আগের সংবাদ

লীনুয়াকাহন-১০

পরের সংবাদ

সৌদিতে নিহতদের তিনজন মহেশখালীর, বাড়িতে কান্নার রোল

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২১ , ৯:২০ অপরাহ্ণ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২১ , ৯:৩২ অপরাহ্ণ

সৌদি আরবের মদিনায় একটি সোফা কারখানায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে মহেশখালীর ৩ রেমিটেন্স যোদ্ধার করুন মৃত্যু হয়েছে। এঘটনায় মহেশখালীর কুতুবজোমে স্বজনদের কান্নায় বাতাস ভারী হয়ে উঠেছে।

জানা গেছে, বাংলাদেশ সময় বুধবার(১০ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত অনুমান ২টার দিকে এই আগুন লাগার ঘটনা ঘটে।

বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল জেদ্দা সৌদি আরব (শ্রম কল্যাণ উইং)এর কাউন্সেলর (শ্রম) মোঃ আমিনুল ইসলাম স্বাক্ষরিত পত্রের সুত্রে জানাযায় নিহত ৩জন হলেন কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলার কুতুবজোম ইউনিয়নের ঘটিভাঙ্গার ওর্য়াডের ডেইম্বনী গ্রামের।

নিহতরা হলেন , কবির আহাম্মদের পুত্র আবদুল আজিজ, জালাল আহাম্মদের পুত্র মোঃ ইসহাক ও আব্দুল গফুরের পুত্র মোঃ রফিক মিয়া। এই দূর্ঘটনায় খবর তাদের গ্রামের বাড়িতে পৌঁছার পর থেকে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

নিহত আব্দুল আজিজের মা ছেনোয়ারা বেগম বলেন, আমার ছেলে তার স্ত্রী সন্তান ও মায়ের স্বপ্ন পূরণ করতে বহু আশা নিয়ে গত ৪ বছর আগে মানুষের কাজ থেকে ধারদেনা নিয়ে সৌদি আরব যায়, চার বছর ধরে মানুষের ধারদেনা শোধ করে সবে মাত্র বাড়িতে টাকা পাঠানোর সময় এসেছে মাত্র আমাদের সবার স্বপ্ন চুরমার করে না ফেরার দেশে চলে গেছেন ‘সেই। আমি সরকারের কাছে আকুল আবেদন করছি ছেলের লাশটি যেনো দেশে ফেরত পাঠায়।

নিহত ইসহাক মিয়ার পিতা বৃদ্ধ জালাল আহমদ কান্না জড়ি কন্ঠে বলেন, আমার জীবনের সবস্বপ্ন ছিলো তাকে ঘিরে, এই মর্মান্তিক মৃত্যু সব শেষ করে দিলো আমার সন্তানের লাশটি চাই আর কিছু দরকার নেই আমার। প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করছি আমার সন্তানকে একটু দেখতে চাই।

নিহত রফিকের পিতা গফুর বার বার মুছা যাচ্ছেন তাকে ঘিরে ধরেছে শত শত এলাকাবাসী তিনি শুধু তার আদরের সন্তানের লাশটি চাই, তার পরিবারে একমাত্র উপাজনকারী ব্যক্তি ছিলো সেই। তার বৃদ্ধ খালা ও দুই সন্তানের আর্তনাতে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়।

বৃহাস্পতিবার বিকালে অত্র এলাকায় গিয়ে স্বজনদের খোঁজ খবর নেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন খোকন তিনি জানান, নিহত ৩ জনের বাড়ি আমার ইউনিয়নের তাদের পরিবারের দুঃখ দুর্দশা দূর করতে তারা সৌদি আরব জান, অনাকাকিংত এই অগ্নিকাণ্ডে এই পরিবার গুলি নিঃস্ব এখন। আমার পরিষদ থেকে যতটুকু সম্বব সহযোগিতা প্রদান করা হবে।
দ্রুত তাদের লাশ বাংলাদেশে আনতে সাংসদ ও জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদন করা হচ্ছে।

নিহতদের পরিবারের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ সমবেদনা জ্ঞাপন করেন সাংসদ আশেক উল্লাহ রফিক , উপজেলা চেয়ারম্যান শরিফ বাদশা, কুতুবজোমের ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ মোশাররফ হোসেন খোকন।

ডিসি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়