ভারতকে জিততে রেকর্ড গড়তে হবে

আগের সংবাদ

শাড়ি আর ধুতি পরে বরফে যুগলের স্কি

পরের সংবাদ

ভারতে হিমবাহ ধস: সুড়ঙ্গে এখনও আটকে ৩৯ জন, চলছে উদ্ধারচেষ্টা

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২১ , ৯:২৬ অপরাহ্ণ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২১ , ৯:২৯ অপরাহ্ণ

ভারতের উত্তরাখণ্ড রাজ্যের চামোলি জেলায় হিমবাহ ভেঙে বন্যা বিধ্বস্ত চামোলির তপোবন জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাছের একটি সুড়ঙ্গের মধ্যে আটকে আছেন অন্তত ৩৯ জন। পাহাড়প্রমাণ প্রতিবন্ধকতা নিয়ে দিন-রাত উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছে উদ্ধারকারী দল। সেনা, ইন্দো-টিবেটান বর্ডার পুলিশ (আইটিবিপি) এবং বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যরা কাজ করছেন ওই টানেলে। এখনও নিখোঁজ রয়েছে ২শ শ্রমিক।

রবিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) চামোলিতে হিমবাহ ফেটে পাহাড় চূড়া থেকে কাদামাটি ও জলের বিশাল স্রোত নেমে আসে অলকানন্দা নদীতে। ফলে কাদামাটির নীচে চাপা পড়ে যায় তপোবন জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র-সহ আশপাশের বিস্তীর্ণ এলাকা। এ পর্যন্ত ১৮ জনের মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। এখনও নিখোঁজ কমপক্ষে ২০০ জন। ভয়াবহ প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের শিকার এই সুড়ঙ্গও। রোববার রাত থেকেই ওই সুড়ঙ্গের ভিতরের কাদামাটি সরিয়ে চলছে উদ্ধারের চেষ্টা।

প্রায় আড়াই কিলোমিটার দীর্ঘ সুড়ঙ্গের উচ্চতা ১২ ফুট, চওড়া ১৫ ফুট। স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, কাদামাটির বন্যা নামার সময় সুড়ঙ্গের ভিতরে কাজ করছিলেন শ্রমিকরা। কিন্তু মুখ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তাঁরা আর বের হতে পারেননি। তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করাও সম্ভব হয়নি। উদ্ধারকারী দলের ধারণা, সুড়ঙ্গের ভেতরে একটি জায়গায় ৩৪ জন এবং অন্য একটি জায়গায় ৫ জন আটকে রয়েছেন।

উদ্ধারকারী দলে আছে আইটিবিপি-র ৩০০ এবং সেনাবাহিনীর ২০০ কর্মী। যোগ দিয়েছেন বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যরাও। মাটি কাটার যন্ত্র, পে লোডার-দিয়ে কাদামাটি সরানোর চেষ্টা চলছে।

আইটিবিপি-র এক কর্মকর্ত সোমবার বিকেলের দিকে বলেন, ‘সুড়ঙ্গের ভিতরে ১০০ মিটারের মতো পরিষ্কার করা সম্ভব হয়েছে। মনে হচ্ছে, আরও ১০০ মিটার এ ভাবে কাদামাটি পরিষ্কার করে এগিয়ে যেতে হবে। এ কাজ করতে আরও বেশ কয়েক ঘণ্টা সময় লাগবে।’

ঘটনাচক্রে এই এলাকাতেই অন্য একটি ছোট টানেল থেকে গতকাল ১২ জন কর্মীকে উদ্ধার করেন সেনা সদস্যরা।

আরআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়