রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফেরাতে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপের আহ্বান

আগের সংবাদ

৩১ পৌরসভায় আ.লীগের মেয়র প্রার্থী ঘোষণা

পরের সংবাদ

বাউফলে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীর বিয়ে

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৩০, ২০২১ , ৪:১১ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ৩০, ২০২১ , ৪:১৬ অপরাহ্ণ

বাউফলের চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নে তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীর বিয়ে হয়েছে বলে চাঞ্চল্যকর খবর পাওয়া গেছে। শুক্রবার (২৯ জানুয়ারি) গভীর রাতে অত্যন্ত গোপনীয়তা রক্ষা করে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি এবং প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে ওই বিবাহ কার্য সম্পন্ন করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা সিদ্দিক মোল্লার মেয়ে রাহিমা বেগম স্থানীয় চর মিয়াজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণিতে অধ্যায়ন করছে। শুক্রবার গভীর রাতে হাবিব চৌকিদারের নেতৃত্বে কয়েকজন মিলে চর ওয়াডেলের একটি বাড়িতে নাজিরপুর ইউনিয়নের হয়জেল হাওলাদারের ছেলে মো. রাসেল হাওলাদারের (৩৫) সঙ্গে ওই ছাত্রির বিয়ের কলমা পড়িয়ে দেয় এবং বরকে ছাত্রীর বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়।

শনিবার ওই বিয়ের ঘটনা ফাঁস হওয়ার পর থেকে ছাত্রির বাবা সিদ্দিক মোল্লা এবং হাবিব চৌকিদারের ফোন পাওয়া যায়। সিদ্দিক মোল্লার মেয়ে রাহিমা বেগম চর মিয়াজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী।

প্রধান শিক্ষক মো. সোলায়মান বলেন, বিয়ের খবর তার জানা নেই। এরপর থেকে ওই প্রধান শিক্ষকও ফোন বন্ধ করে রাখেন।

৬ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. সাহাবুদ্দিন জানান, বিয়ের খবরটি শনিবার সকালে জানতে পারি। বিয়ের বিষয়টি অত্যন্ত গোপণভাবে হওয়ায় কলেমা পড়ানো ব্যাক্তির নামটি এখনো জানতে পারিনি।

চন্দ্রদ্বীপ ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক আলকাচ মোল্লা জানান, বিষয়টি সম্পর্কে একটু আগে জেনেছি। সংশ্লিষ্ট সকলেরই ফোন বন্ধ পাচ্ছি। বিস্তারিত জানতে ছাত্রীর বাড়িতে লোক পাঠানো হচ্ছে।

বাউফল উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকির হোসেন জানান, এধরণের ঘটনা চেয়ারম্যান এবং মেম্বর উদ্যোগ নিয়ে বন্ধ করার কথা। যেহেতু তারাও জানেন না আমি দেখছি।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়