আজকের সংবাদপত্র পর্যালোচনা

আগের সংবাদ

টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

পরের সংবাদ

ভারত থেকে এলো করোনার ৫০ লাখ টিকা

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৫, ২০২১ , ১১:০২ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২৫, ২০২১ , ৩:০৩ অপরাহ্ণ
ভারত থেকে কেনা প্রথম চালানের ৫০ লাখ করোনা ভাইরাসের টিকা দেশে পৌঁছেছে। স্থানীয় সময় সোমবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে এয়ার ইন্ডিয়ার একটি বিমানে করে টিকাগুলো ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়। ইতোমধ্যে এটি সংরক্ষণ ও বিতরণের সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। সারা দেশে পাঠানোর আগে এই টিকা সরকারি ওষুধ পরীক্ষাগারে পরীক্ষা করে ছাড়পত্র নেওয়া হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের থেকে জানা যায়, ৫০ লাখ টিকা টঙ্গীতে অবস্থিত বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের গুদামে (ওয়্যারহাউজ) সংরক্ষণ করে রাখা হবে।

এদিকে, রবিবার সন্ধ্যায় টিকার সর্বশেষ তথ্য নিয়ে গুলশানের নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন করেন বেক্সিমকোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সংসদ সদস্য নাজমুল হাসান পাপন। তিনি জানান, বেক্সিমকোর আনা করোনার টিকা বাণিজ্যিক নয়। তাদের আনা টিকা বাইরে কিনতে পাওয়া যাবে না।

দেশে এই ভ্যাকসিন সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকোর গুদামে দুইদিন রাখা হবে। তারপর সেখান থেকে স্বাস্থ্য অধিদফতরের তালিকা অনুযায়ী দেশের বিভিন্ন জেলায় পাঠানো হবে। আগামীকাল মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) থেকে ভ্যাকসিনের জন্য রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম শুরু হবে। ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহ থেকে জাতীয়ভাবে টিকা দেয়া শুরু হতে পারে।

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আবদুল মান্নান বলেছেন, আগামী বুধবার (২৭ জানুয়ারি) রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের একজন নার্সকে করোনা টিকা দেয়ার মাধ্যমে ভার্চুয়ালি এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই দিন আরও ২০ থেকে ২৫ জনকে ভ্যাকসিন দেয়া হবে।

এরপর ২৮ জানুয়ারি ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, মুগদা জেনারেল হাসপাতাল, কুয়েত মৈত্রী হাসপাতাল এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ৪০০ থেকে ৫০০ জনকে প্রাথমিকভাবে করোনার টিকা দেয়া হবে।

এছাড়া আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশে টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে। এই ৫০ লাখ টিকা প্রথম দফায় ৫০ লাখ মানুষকে দেয়া হবে। ২০ জানুয়ারি প্রথম দেশে আসে ভারত সরকারের উপহার দেয়া ২০ লাখ ডোজ কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন।

গেল নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ভারতের টিকা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে বাংলাদেশ সরকার ও বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের ত্রিপক্ষীয় চুক্তি হয়। সেরামের কাছ থেকে টিকা এনে বাংলাদেশ সরকারের হাতে তুলে দেবে বেক্সিমকো।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়