সিরিজ জয়ে ক্রিকেট দলকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

আগের সংবাদ

কারা পাবে ভ্যাকসিন?

পরের সংবাদ

উলিপুরে বিএনপি মেয়র প্রার্থীর প্রচারণায় বাঁধা প্রদানের অভিযোগ

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৫, ২০২১ , ৮:৫৫ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২৫, ২০২১ , ৮:৫৫ অপরাহ্ণ

উলিপুর পৌরসভার নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকের কর্মীদের নির্বাচনী প্রচারণায় বাধাদান, হুমকি-ধামকী এবং হয়রানীর অভিযোগ উঠেছে। সোমবার (২৫ জানুয়ারি) বিকেল ৫ টায় উলিপুর ভবনের বিএনপি কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী হায়দার আলী মিয়া নিজে এ অভিযোগ করেন। আগামী ৩০ জানুয়ারি এ পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনের দিন-খন যতই এগিয়ে আসছে পরিস্থিতি ততই নাজুক হয়ে পড়ছে বলে মন্তব্য তার।
লিখিত বক্তব্যে বিএনপি’র মেয়র প্রার্থী হায়দার আলী মিয়া বলেন, “উলিপুর পৌরসভার আসন্ন নির্বাচন সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ, অবাধ ও নিরপেক্ষ ভাবে উৎসব মুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে বলে আমি আশা করেছিলাম”। কিন্তু গত ২০ জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত আমার সকল ওয়ার্ডের ভোটার ও নেতাকর্মীদের আমার প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থীর নৌকা প্রতীকের কর্মীরা প্রকাশ্যে ভয়ভীতি ও হুমকি-ধামকি প্রদর্শন করছে।
শুধু তাই নয়, আমার কর্মীরা যেন এলাকায় ধানের শীষের পক্ষে প্রচারণা চালাতে না পারেন এবং ভোটের দিন যেন কেউ ধানের শীষের পক্ষে কেন্দ্রে এজেন্ট না হয় তার জন্য নানা মুখী- ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদান চলছে। তিনি বলেন, ” এমন পরিস্থিতি একটি নিরপেক্ষ নির্বাচনের সম্পূর্ণ অন্তরায় বলে আমি মনে করছি”। এ অবস্থায় এজেন্ট নিয়োগের ব্যাপারে আমি মারাত্মকভাবে সন্দিহান হয়ে পড়েছি। গত ২৩ জানুয়ারি বিকেল ৩ টায় পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডে ধানের শীষের পক্ষে মহিলা কর্মীরা প্রচারণা চালাতে গিয়ে নৌকা প্রতীকের কর্মীদের দ্বারা লাঞ্ছিত হয়েছেন। এসময় তারা ধানের শীষের লিফলেট কেড়ে নিয়ে ছিঁড়ে ফেলে জোরপূর্বক প্রচারণা বন্ধ করে বলে অভিযোগে উল্লেখ করেন তিনি। ঐ দিন সাড়ে ৩ টার দিকে উলিপুর বাজারেও ধানের শীষের প্রচারণায় বাধা দান ও লিফলেট কেড়ে নিয়ে ছিড়ে ফেলেন নৌকার কর্মীরা।
তিনি আরো বলেন,গতকাল রোববার (২৪ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ১১টার দিকে ১নং ওয়ার্ডের ধানের শীষের কর্মী আজিজার রহমান মাস্টার ও আতাউর রহমান রুবেলের বাড়িতে নৌকা মার্কার কর্মী নামধারী সন্ত্রাসীরা ৩৫/৪০টি মটরসাইকেল নিয়ে একযোগে আক্রমণ চালায় এবং নানা ধরনের হুমকি-দেয়।

প্রতিটি ঘটনা জেলা রিটার্নিং অফিসার ও সকল পর্যায়ের প্রশাসনিক কর্মকর্তাদেরকে অবহিত করেছেন বলেও তিনি সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, এসব অনিয়মের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক কর্মকর্তারা পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন বলে তাকে আশ্বস্ত করেছেন। এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র প্রার্থী হায়দার আলী মিয়া বলেন, যত বাঁধাই সৃষ্টি করা হোক না কেন শেষ পর্যন্ত নির্বাচনী মাঠে থাকবে বিএনপি।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মেয়র প্রার্থী হায়দার আলী মিঞা, সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর রহমান বুলবুল, পৌর বিএনপির সভাপতি নুর মোহাম্মদ প্রমুখ।

ডিসি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়