বখে যাওয়া দিহানের বাবার এত সম্পত্তির উৎস কোথায়?

আগের সংবাদ

সেরাম ইনস্টিটিউটের অগ্নিকাণ্ডে প্রাণ হারাল ৫ জন

পরের সংবাদ

জয়ে ফিরলো চট্টগ্রাম আবাহনী ও সাইফ স্পোর্টিং

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২১, ২০২১ , ৭:২৪ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২১, ২০২১ , ৭:২৪ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলের এবারের মৌসুমে প্রথম ম্যাচে সাইফ স্পোর্টিং ১-১ গোলে ড্র করেছিল রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটির বিপক্ষে। বৃহস্পতিবার মোহামেডান স্পোর্টিংকে হারিয়ে জয়ে ফিরেছে তারা। ফরোয়ার্ড আরিফুর রহমানের গোলের পর নাইজেরিয়ার জন ওকোলির গোলে ২-১ ব্যবধানে জয় পেয়েছে সাইফ। মোহামেডানের গোলটি জাপানিজ ফুটবলার উরু নাগাতার। দিনের আরেক ম্যাচে আরামবাগ ক্রীড়া চক্রকে ১-০ গোলের হারের স্বাদ দিয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী। জয়সূচক একমাত্র গোলটি করেন নিক্সন ব্রিজোলারা। টুর্নামেন্টে নিক্সনের এটি দ্বিতীয় গোল। শেখ জামালের বিপক্ষে ২-১ গোলে হারা ম্যাচে একটি গোল করেছিলেন ব্রাজিলের এ ফরোয়ার্ড।

কুমিল্লার ভাষা সৈনিক দিরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরু থেকে আধিপত্য ধরে রেখেছিল মোহামেডান। কিন্তু গোল পাচ্ছিলা না মোটেও। ১২ মিনিটে হাবিবুর রহমান সোহাগের ফ্রি কিক ক্রসবারে লাগলে গোলবঞ্চিত হতে হয় সাদা-কালোদের। ৪০ মিনিটে বল নিয়ে বক্সে ঢুকেও শট নিতে দেরি করায় সুযোগ হারান মোহামেডানের আমিনুর রহমান সজীব।

উল্টো গোল খেয়ে বসে মোহামেডান। ৪৪তম মিনিটে কেনেথ ইকেচুকুর পাস ধরে গোল করেন আরিফুর। অতিরিক্ত সময়ের যোগ করা সময়ে আরো একটি গোল পায় তারা। নাইজেরিয়ান জন ওকোলির গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ হয় সাইফের। সতীর্থের থ্রু থেকে বক্সে ঢুকে মাপা শটে লক্ষ্যভেদ করেন এই মিডফিল্ডার।

অন্যদিকে বারবার আক্রমণে উঠে আসা মোহামেডান একমাত্র গোলটি করে ম্যাচের ৬০ মিনিটে। হাবিবুর রহমান সোহাগের ফ্রি-কিকে জাপানি মিডফিল্ডার উরু নাগাতার হেড জড়ায় জালে। এরপর অবশ্য ম্যাচে আর সমতা ফেরাতে পারেনি তারা। সাইফ ২-১ গোলে স্কোরলাইন ধরে রেখেই মাঠ ছেড়েছে। এর ফলে দুই ম্যাচে এক জয় ও এক ড্রয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চতুর্থ স্থানে আছে সাইফ স্পোর্টিং। হেরে যাওয়া মোহামেডান দুই ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে।

আরেক ম্যাচে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ম্যাচের দশম মিনিটে পাল্টা আক্রমণ থেকে আরামবাগ গোলের কাছাকাছি গিয়েও ব্যর্থ হয়। নাইজেরিয়ান চিজোবা ক্রিস্টেফারের কোনাকুনি শট বারে লেগে ফিরে আসে। এরপর ২৬ মিনিটে চট্টগ্রামের রাকিবের দুর্দান্ত শট ক্রসবারে লেগে ফেরত আসে। অবশ্য চার মিনিট পরই গোলের সন্ধান পায় চট্টগ্রাম আবাহনী। এবার বল বানিয়ে দিয়েছিলেন চিনেদু ম্যাথিউ। এই ফরোয়ার্ডের ক্রসে নিক্সন ব্রিজোলারা ঊরুতে বলের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে চমৎকার ভলিতে লক্ষ্যভেদ করেন।

ম্যাচের বাকি সময়ে আর কেউ গোল করতে না পারলেও বেশ কয়েকটি আক্রমণ ছিল চোখে পড়ার মতো। তাতে শেষ পর্যন্ত স্বস্তির জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে মারুফুল হকের শিষ্যরা। এ নিয়ে এক ম্যাচে হারার পর জয় পেল চট্টগ্রাম আবাহনী। আগের ম্যাচে শেখ জামালের বিপক্ষে ২-১ গোলে হেরেছিল তারা। এ নিয়ে এক জয় ও এক হারে ৩ পয়েন্ট পেল চট্টগ্রাম। টেবিলে তাদের অবস্থান সাত নম্বরে। দুই ম্যাচের দুটিতে হারা আরামবাগ রয়েছে সবার নিচে। আগের ম্যাচে তারা মোহামেডানের বিপক্ষে ৩-০ গোলে হারবরণ করে।

এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়