৫ উইকেট হারিয়ে বিপাকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

আগের সংবাদ

মাঠে ফিরেই চমক দেখালেন সাকিব

পরের সংবাদ

হাতে বই দিয়ে ৪৯ শিশুকে মা-বাবার কাছে পাঠালেন আদালত

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২০, ২০২১ , ২:২৮ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২০, ২০২১ , ২:২৮ অপরাহ্ণ

কারাগারে নয় বই হাতে শিশু অভিযুক্তকে সংশোধনের জন্য বাবা মায়ের কাছে ফেরত পাঠালেন সুনামগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক। সুনামগঞ্জে নানা অভিযোগে পৃথক ৩৫টি শিশু অপরাধ মামলার নিষ্পত্তি করেছে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালত।

বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্র্যুনালের বিচারক মো. জাকির হোসেন ১০টি শর্তে ৩৫টি মামলার ৪৯ জন অভিযুক্ত শিশুকে বিভিন্ন মামলা থেকে মুক্তি দেন।

শিশুরা কারাগার বা সংশোধনাগারে নয় তাদের ১০টি শর্ত পালন করতে হবে। শর্ত পালনের বিষয়টি তত্ত্বাবধান করবেন জেলা প্রবেশন কর্মকর্তা।

আদালত সূত্র জানায়, এসব শিশুদেরকে পরিবারের অন্য সদস্যদের সাথে মামলায় জড়ানো হয়েছিল। যাদেও বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৩২৩ ধারার অভিযোগও আনা হয়েছিল। শিশুদেরও সুন্দর ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেও আদালত ১০টি শর্ত দিয়ে তাদের মা বাবার জিম্মায় মুক্তি দেন।

শর্তগুলোর মধ্যে ১০০ মনীষীর জীবনী নামক গ্রন্থটি প্রবেশনাধীন সময়ে পাঠ করা, বাবা-মাসহ গুরুজনদেও আদেশ নির্দেশ মেনে চলা, বাবা মায়ের সেবা যত্ন করা, ধর্মীয় অনুশাসন মানা, নিয়মিত ধর্মগ্রন্থ পাঠ করা, ২০টি গাছ লাগানো ও পরিচর্যা করাসহ আরো কয়েকটি শর্ত পালন করতে হবে।

যেসকল শিশুকে সংশোধনের জন্য সুযোগ দেয়া হলো তাদেরকে পর্যবেক্ষনের দ্বায়িত্ব দেন সমাজসেবা দপ্তরের প্রবেশন কর্মকর্তাকে।

শিশুদের সংশোধনের সুযোগ দেয়ায় খুশি আইনজীবীরাও। সরকারী কৌশলী এ্যাডভোকেট নান্টু রায় জানালেন আদালতের এমন দৃষ্টান্তমুলক রায়ের ফলে শিশুরা তাদের সুন্দর জীবনযাপন করার সুযোগ পাবে।

পিআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়