অত্যুজ্জ্বল আদর্শ ছিলেন মুক্তিযুদ্ধা মিহির দত্ত

আগের সংবাদ

হোয়াইট হাউজ ছাড়লেন ট্রাম্প

পরের সংবাদ

সংবাদের প্রতিবাদ জানাল আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২০, ২০২১ , ৭:২০ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২০, ২০২১ , ৭:২০ অপরাহ্ণ

বগুড়ার ধুনট পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী অধ্যাপক টিআইএম নূরুন্নবী তারিক সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন। বুধবার (২০ জানুযারি) বিকেল ৫টায় উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে তিনি দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকায় ‘নৌকা ডোবাতে মরিয়া দলের এমপিরা’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

সংবাদ সম্মেলনে টিআইএম নূরুন্নবী তারিক বলেন, বগুড়া- ৫ আসনের সাংসদ হাবিবর রহমান একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি রাজনৈতিক ও সামাজিক কর্মকান্ড এবং সাংসদ হিসেবে বিভিন্ন কর্মকান্ডে অংশ গ্রহণের সময় বরাবরই নৌকা প্রতীককে স্বাধীনতা স্বপক্ষের শক্তির প্রতীক, বঙ্গবন্ধুর প্রতীক এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতীক হিসেবে উল্লেখ করেন।

তিনি সব নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে স্বাধীনতার পক্ষে, উন্নয়নের পক্ষে থাকার জন্য মানুষের প্রতি আহবান জানিয়ে এসেছেন। চলমান ধুনট পৌরসভা নির্বাচনেও তিনি আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর নৌকা প্রতীকের পক্ষে শক্তিশালী ভূমিকা রাখছেন। আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক বর্ধিত সভায় অংশ নিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের নৌকা’র বিজয়ের লক্ষ্যে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার নির্দেশনা দিয়েছেন।

নূরুন্নবী তারিক আরো বলেন, সাংসদ হাবিবর রহমানের ছোট ভাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম রেজা পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। তিনি দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেনি। তিনি সংসদ সদস্যের নিদের্শনা মোতাবেক আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থীর নৌকা প্রতীকের পক্ষে কাজ করছেন। বর্তমানে নির্বাচন কমিশনের আইনগত বিধিনিষেধ থাকার কারণে সাংসদ নৌকার প্রচারণায় অংশ নিতে পারছেন না। কিন্তু নৌকার বিজয়ের লক্ষ্যে দলীয় নেতাকর্মীদের যথাযথ দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। বাংলাদেশ প্রতিদিন প্রতীকায় ‘নৌকা ডোবাতে মরিয়া দলের এমপিরা’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদে উল্লেখ করা হয়েছে, বাদশা এমপির মদদে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে মাঠে রয়েছেন।

সাংবাদিক সম্মেলনে নূরুন্নবী তারিক অভিযোগ করেন, প্রকাশিত সংবাদের মাধ্যমে মানুষের মধ্যে ভুল ধারণা তৈরি করা হয়েছে। নৌকা প্রতীকের প্রতি এমপির সমর্থন নেই মর্মে অপপ্রচারের ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। এই ষড়যন্ত্রের বিষয়ে তিনি বিদ্রোহী প্রার্থী এজিএম বাদশাহ্’র প্রতি সন্দেহ প্রকাশ করছেন। তিনি সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জ্ঞাপন করেন। একই সঙ্গে ধুনটবাসীকে ষড়যন্ত্রমুলক অপপ্রচার থেকে নিজেদের সতর্ক থাকার জন্য অনুরোধ করেন।

উল্লেখ্য, বুধবার জাতীয় দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকায় নৌকা ডোবাতে মরিয়া দলের এমপিরা’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। সংবাদটির ৬ষ্ঠ প্যারায় উল্লেখ করা হয় ‘একই অবস্থা ধুনট পৌরসভায়। এখানে দলের মনোনয়ন পেয়েছেন টিআই নুরুন্নবী। স্থানীয় এমপি হাবিবুর রহমানের পছন্দের প্রার্থী ছিলেন বর্তমান মেয়র এজিএম বাদশা। নুরুন্নবী নৌকা প্রতীক পাওয়ায় বাদশা এমপির মদদেই বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে মাঠে রয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। বিগত পৌর নির্বাচনে বাদশা বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেন। বিজয়ী হওয়ার পর স্থানীয় এমপিই তাকে আবার দলে ভেড়ান। এবারও বহিস্কার করা হয়েছে।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়