শিক্ষা নিয়ে শঙ্কা দূর করতে হবে

আগের সংবাদ

একজন শিল্পীর সংগ্রামী জীবনকথা

পরের সংবাদ

ভ্যাকসিন নিলাম আপনিও নিন

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২০, ২০২১ , ১০:১৪ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২০, ২০২১ , ১০:১৪ অপরাহ্ণ

ভ্যাকসিন নিয়ে যাদের সংশয় আছে, তাদের বলছি, যে কোনো ওষুধের কমবেশি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকে, কিন্তু অপকারের চেয়ে উপকার বহুগুণ বেশি হওয়ায় মানুষ ওষুধ খায়। তাই প্রথম সুযোগেই ভ্যাকসিন নেয়া উচিত। সামাজিক মাধ্যমে অনেকেই তাদের ভ্যাকসিন নেয়ার ছবি শেয়ার করেছেন, এর ইতিবাচক দিক হচ্ছে, এতে অন্যরা উৎসাহিত হচ্ছেন।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের আমলে বের হওয়া ভ্যাকসিন গত ১৭ জানুয়ারি নিলাম। আমার ভাগ্যে জুটেছে মডার্নার টিকা। ২০ জানুয়ারি প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেন কথা জো বাইডেন। ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নেব কমলা দেবী-বাইডেন আমলে। যারা মার্কিন গণতন্ত্রের জন্য চিন্তায় অস্থির হয়েছিলেন, তাদের জানাচ্ছি, দুই প্রশাসনের আমলে ভ্যাকসিনের দুই ডোজ নেয়া সম্ভবত ‘গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা’র উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত? এটাই আমেরিকান গণতন্ত্র। স্মর্তব্য যে, ট্রাম্পের আমলে ভ্যাকসিন বের হওয়ায় প্রেসিডেন্ট ইলেক্ট জো বাইডেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ভ‚য়সী প্রশংসা করেছিলেন।
ভ্যাকসিন নিয়ে যাদের সংশয় আছে, তাদের বলছি, যে কোনো ওষুধের কমবেশি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকে, কিন্তু অপকারের চেয়ে উপকার বহুগুণ বেশি হওয়ায় মানুষ ওষুধ খায়। তাই প্রথম সুযোগেই ভ্যাকসিন নেয়া উচিত। সামাজিক মাধ্যমে অনেকেই তাদের ভ্যাকসিন নেয়ার ছবি শেয়ার করেছেন, এর ইতিবাচক দিক হচ্ছে, এতে অন্যরা উৎসাহিত হচ্ছেন। কারো কারো মতে এর নেতিবাচক দিক হচ্ছে, আপনি নিজের ‘পাবলিসিটি’ করছেন? আমি জো বাইডেনের ভ্যাকসিন নেয়ার ছোট্ট ভিডিওটি দেখেছি, তার সম্ভবত পাবলিসিটির প্রয়োজন ছিল না, তার ভিডিও অনেককে উৎসাহিত করেছে।
সামাজিক মাধ্যমে দেখলাম বাংলাদেশি অনেকে নাকি ক্যাটাগরিতে না পড়লেও মিথ্যা তথ্য দিয়ে ভ্যাকসিন নিচ্ছেন। আমি নিয়েছি ৬৫+ ক্যাটাগরিতে, আমার গিন্নি আলপনা গুহ নিয়েছেন ‘শিক্ষা’ ক্যাটাগরিতে। কল করে (৮৭৭-৮২৯-৪৬৯২) দুজন দুদিনে পেলাম। টিকা পেতে সাকল্যে ৩০-৪০ মিনিট সময় লাগে, এর মধ্যে টিকার দেয়ার পর বাধ্যতামূলক পর্যবেক্ষণে থাকতে হয় ১৫ মিনিট। কোনো ঝামেলা নেই, আইডি-ইন্স্যুরেন্স কার্ড নিতে বললেও কেউ দেখেনি। খুব সুন্দর ব্যবস্থা। আমার কাছে মনে হয়েছে, এরা চাচ্ছে যত বেশি সংখ্যক মানুষকে জলদি টিকা দেয়া যায়?
বাসায় ফিরে দেখি ই-মেইল এসে গেছে, টিকা দেয়ার জন্য কংগ্র্যাচুলেশন, সঙ্গে সমস্যা হলে কী কী করতে হবে? পরবর্তী ডোজের জন্য অ্যাপয়েন্টমেন্টের লিঙ্ক সেখানে ছিল, ঢুকলাম, ইন্স্যুরেন্স ইনফরমেশন দিয়ে কিছুতেই ঢুকতে পারছিলাম না। টিকা ফ্রি, কোনো ইন্স্যুরেন্সের প্রয়োজন নেই, তাই ‘নো ইন্স্যুরেন্স’ টিক দিলাম, সব ঠিক হয়ে গেল, তবে ইন্স্যুরেন্স কার্ডের উভয় দিক আপলোড করেছি। দ্বিতীয় ডোজ ১৪ ফেব্রুয়ারি। বা-হাতে একটু ব্যথা, মাঝেমধ্যে একটু অস্বস্তি ছাড়া তেমন সমস্যা নেই।
নরওয়েতে ফাইজারের ভ্যাকসিনে ২৯ জন মারা গেছেন, এদের বেশির ভাগের বয়স ৮০-৯০। সুইডেনেও কিছু মানুষ মারা গেছেন। এ নিয়ে খোদ নরওয়ে এবং সুইডেনে প্রশ্ন উঠেছে যে, এরা কি ভ্যাকসিন নেয়ার কারণে মারা গেছেন, নাকি অন্য কারণে? সুইডেনে ময়নাতদন্ত না করেই মৃত্যুর কারণ ‘কোভিড’ লেখা হয়েছে কিনা তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। আমেরিকায় প্রতি বছর ইনফ্লুয়েঞ্জায় ৬০ হাজার, হৃদরোগে এর ডবল মানুষ মারা যায়, কোভিডের কারণে এখন ওইসব রোগ গৌণ হয়ে গেছে। ভারতের কুড়ি লাখ টিকা ২০ জানুয়ারি বাংলাদেশে পৌঁছবে। এর মধ্যে সমালোচনা শুরু হয়ে গেছে? আরে ভাই, আপনি ভারতের টিকা নেবেন না ইংল্যান্ড বা চীনের টিকা নেবেন তা আপনার ব্যাপার, বিরোধিতা করেন কেন? ভাই, পাকিস্তানের তো টিকা নেই, তা-ই যেটা পান, সেটাই নিন, ‘জান বাঁচানো ফরজ’।

নিউইয়র্ক থেকে
[email protected]

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়