ভাগ্যের পরিবর্তন চান তারা

আগের সংবাদ

শিক্ষা নিয়ে শঙ্কা দূর করতে হবে

পরের সংবাদ

প্রচারণার নামে শব্দদূষণ বন্ধ করুন!

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২০, ২০২১ , ১০:০৯ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২০, ২০২১ , ১০:১৭ অপরাহ্ণ

গণতান্ত্রিক দেশে ভোটাধিকার মানুষের মৌলিক অধিকার। এখানে সমাজ ও দেশের নেতা তথা জনগণের সেবক নির্বাচনের ক্ষেত্রে ভোটের যে মাধ্যম রয়েছে তা নিঃসন্দেহে ভালো একটি প্রক্রিয়া। কিন্তু সম্প্রতি দেখা যাচ্ছে, পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রার্থীরা তাদের নিজেদের হাজারো প্রতিশ্রুতি ও গুণগান সংবলিত গানসহ নানা রকমের শ্রুতিমধুর কথার মিশ্রণ ঘটিয়ে তৈরি করা রেকর্ডিংগুলো প্রচারের মাধ্যমে জনজীবনকে প্রায় অতিষ্ঠ করে তুলেছে। আমরা দেখতে পাই, অন্যান্য সময়ে স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, মসজিদ, মন্দির এসব জায়গায় চলমান গণপরিবহনগুলোকে অযথা হর্ন বাজানো নিয়ে কঠোর নিষেধাজ্ঞা ও সচেতনতা গড়ে তুলতে নানা রকমের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়। কিন্তু নির্বাচনী প্রচারণার নামে যে শব্দদূষণের প্রতিযোগিতায় নেমে পড়ে ভোট প্রার্থীরা তার কোনো নীতিমালা বা নিষেধাজ্ঞা আমাদের দৃষ্টিগোচর হয় না। মাঝে মাঝে এমনও দেখা যাচ্ছে, একদিকে আজান হচ্ছে, নামাজ হচ্ছে, কিন্তু মসজিদের পাশ দিয়েই উচ্চ শব্দে গান বাজিয়ে তারা প্রচারণা চালিয়েই যাচ্ছে। এতে করে সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। একজন মানুষের নৈতিক এই দায়িত্বগুলো মেনে চলা উচিত। অথচ বাস্তবে তার কোনো প্রতিফলন নেই। এমনকি সাধারণ মানুষ এতে অতিষ্ঠ হয়ে পড়লেও এ নিয়ে মুখ খুলে কাউকে কিছু বলতে পারে না। গণতান্ত্রিক দেশে বাস করে এমন অত্যাচার সত্যিই সহ্য করা যায় না।
এই শব্দদূষণের ফলে পরিবারের শিশু, বৃদ্ধসহ সবাই নানা রকমের শারীরিক ও মানসিক সমস্যার তৈরি হচ্ছে। একটা কথা প্রচলিত আছে, ‘প্রচারেই প্রসার’। কিন্তু যোগ্য প্রার্থী যারা তাদের তো এভাবে রেষারেষি করে প্রচারণার প্রয়োজন নেই! এলাকার জনগণ এমনিতেই তাকে তাদের মূল্যবান ভোট প্রয়োগের মাধ্যমে জয়যুক্ত করবেন। তাই দায়িত্বরত প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলছি, নির্বাচনী প্রচারণার নামে শব্দদূষণ রোধ করে, প্রচারণার একটি নির্দিষ্ট মাধ্যম ও প্রক্রিয়া তৈরি করুন। পাশাপাশি প্রার্থীদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলতে চাই, জনগণের সেবক হিসেবে নিযুক্ত হওয়ার আগেই জনগণের নানাবিধ সমস্যার কারণ না হওয়ার জন্য।

শিক্ষার্থী, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়।
[email protected]

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়