তানোরে শ্রেষ্ঠ গ্রাম পুলিশের স্বীকৃতি পেলেন শহিদুল

আগের সংবাদ

টোটার পরিবর্তে ফেলুদা হয়ে মঞ্চে ইন্দ্রাশিস

পরের সংবাদ

আইডিআরএর নির্দেশনায় পুঁজিবাজারে চাঙ্গা বিমা

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২০, ২০২১ , ১২:১৮ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২০, ২০২১ , ১২:১৮ অপরাহ্ণ

পরিশোধিত মূলধন এবং মূলধনের ৬০ শতাংশ পুঁজি ধারণ সংক্রান্ত আইডিআরএর দেয়া নির্দেশনার প্রত্যেক্ষ প্রভাব পড়েছে।

পরিশোধিত মূলধন এবং মূলধনের ৬০ শতাংশ পুঁজি ধারণ সংক্রান্ত আইডিআরএর দেয়া নির্দেশনার প্রত্যেক্ষ প্রভাব পড়েছে পুঁজিবাজারে। এই প্রজ্ঞাপন জারির পরের দিনে পুঁজিবাজারের তালিকাভুক্ত বিমা কোম্পানির দাম হু হু করে বাড়ছে। গতকাল লেনদেন শেষে চাঙ্গা ছিল বিমা কোম্পানিগুলোর পুঁজি দরে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, বিমা খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) গত সোমবার দেশে নিবন্ধিত লাইফ ইন্স্যুরেন্স এবং নন-লাইফ ইন্স্যুরেন্সগুলোকে আগামী এক মাসের মধ্যে ন্যূনতম পরিশোধিত মূলধন সংরক্ষণ এবং পরিশোধিত মূলধনের ৬০ শতাংশ পুঁজি ধারণ আইন পরিপালনের নির্দেশনা জারি করেছে। এই নির্দেশনার পর দিন অর্থাৎ গতকাল মঙ্গলবার পুঁজিবাজারের লেনদেন শুরু থেকেই বিমা খাতের বেশিরভাগ শেয়ারের দর সার্কিট ব্রেকারের সর্বোচ্চ সীমায় পৌঁছায়। পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিমা খাতের ৪৯টির কোম্পানির মধ্যে ৪৬টির বা ৯৪ শতাংশের পুঁজি দর বেড়েছে। এমনকি প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) টপটেন গেইনার তালিকায় শতভাগ দখলে নিয়েছে বিমা খাত।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, গতকাল বেশিরভাগ কোম্পানির পুঁজি ক্রয় করার জন্য বিনিয়োগকারী থাকলেও বিক্রেতার দেখা মেলেনি। যার ফলে দিন শেষে দেখা গেছে ডিএসইতে টপটেন গেইনার তালিকায় থাকা সব কোম্পানি বিমা খাতের। এদিন ডিএসইতে টপটেন গেইনারের শীর্ষে উঠে আসে অগ্রণী ইন্স্যুরেন্স। রবিবার কোম্পানিটির শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৩১ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে এর শেয়ারে ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ৩৪.১০ টাকায়। অর্থাৎ কোম্পানিটির পুঁজি দর ৩.১০ টাকা বা ১০ শতাংশ বেড়েছে। এর মাধ্যমে অগ্রণী ইন্স্যুরেন্স ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে। ডিএসইতে টপটেন গেইনারের উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে গ্রিন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্সের ১০ শতাংশ, প্রগতি ইন্স্যুরেন্সের ১০ শতাংশ, প্রভাতী ইন্স্যুরেন্সের ৯.৯৮ শতাংশ, ঢাকা ইন্স্যুরেন্সের ৯.৯৭ শতাংশ, ইসলামী ইন্স্যুরেন্সের ৯.৯৭ শতাংশ, ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্সের ৯.৯৫ শতাংশ, এশিয়া প্যাসিফিক জেনারেল ইন্স্যুরেন্সের ৯.৯৫ শতাংশ, পিপলস ইন্স্যুরেন্সের ৯.৯৫ শতাংশ এবং রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্সের পুঁজি দর ৯.৯৪ শতাংশ বেড়েছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বিমা কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন সংরক্ষণের বাধ্যবাধকতা তৈরি হওয়ায় বিমা কোম্পানির পুঁজি বিক্রিতে আগ্রহ কম বিনিয়োগকারীদের। যার কারণে শেয়ারের দাম বাড়ছে বলেও মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, বিমা কোম্পানির দাম বাড়ার ইতিবাচক প্রবণতা অন্য খাতের ওপর পড়ে। ফলে দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইতে মাত্র ১৮১টি প্রতিষ্ঠান দাম বাড়ার তালিকায় নাম লেখায়। বিপরীতে দাম কমেছে ১০৬টির। ৭০টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। অবশ্য পতনের খাতায় নাম লেখায় বেশিরভাগ ব্যাংক। যে কারণে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের পুঁজি ও ইউনিটের দাম বাড়ার পরও সূচকের বড় উত্থান হয়নি। দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক আগের দিনের তুলনায় ১৯ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৮২০ পয়েন্টে উঠে এসেছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ৮ পয়েন্ট বেড়ে ২ হাজার ২০৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর ডিএসইর শরিয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ২৯১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

এদিন প্রধান মূল্য সূচক বাড়লেও ডিএসইতে লেনদেনের পরিমাণও মোটা অঙ্কে কমেছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ২৯০ কোটি ৯০ লাখ টাকা। যা আগের দিন ছিল ১ হাজার ৫১৯ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে ২২৮ কোটি ৬৯ লাখ টাকা। টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে রবির পুঁজি। কোম্পানিটির ১৪৬ কোটি ৮৩ লাখ টাকার পুঁজি লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা বেক্সিমকোর ১৩১ কোটি ১৭ লাখ টাকার পুঁজি লেনদেন হয়েছে। ৭৭ কোটি ১৬ লাখ টাকার পুঁজি লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে সামিট পাওয়ার। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্য সূচক সিএএসপিআই বেড়েছে ২৯ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৮৬ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেয়া ২৭৮টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১২৯টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৯০টির এবং ৫৯টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়