সাংবাদিক হিলালী ওয়াদুদ চৌধুরীর দাফন সম্পন্ন

আগের সংবাদ

দেশে করোনায় মৃত্যু আরো ২১, শনাক্ত ৫৭৮

পরের সংবাদ

লামা পৌর নির্বাচন

জালভোট দেয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা, আটক ২

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৬, ২০২১ , ২:৫৩ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৬, ২০২১ , ২:৫৪ অপরাহ্ণ

কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে চলছে বান্দরবানের লামা পৌরসভা নির্বাচন। জালভোট দিতে গিয়ে আটক হয়েছেন দুই ব্যক্তি। এরমধ্যে পৌরসভার নয় নাম্বার ওয়ার্ডে শিলের তুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুপুর একটার দিকে আটক হন মো. আলমগীর হোসেন (৪৫)। এর আগে বেলা বারটার দিকে পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডে জালভোট দিতে গিয়ে আটক হন আব্দুর রহিম (৩০) নামের এক যুবক। তাকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল আটটায় পৌরসভার নয়টি কেন্দ্রে শুরু হয়েছে ভোট গ্রহণ কার্যক্রম। বিগত কয়েকটি নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রে ভোটারের খরা দেখা গেলেও এবারের নির্বাচন পুরোপুরি ভিন্ন। সকাল থেকেই কেন্দ্রগুলোতে নারী ও বৃদ্ধ ভোটারদের উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। তরুণ ভোটারদের উপস্থিতিও লক্ষণীয়। দুপুর বারটার পর থেকে পুরুষ ভোটাররাও ভোট কেন্দ্রমুখী হয়েছেন।

রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ রেজাউল করিম জানান, দুপুর একটা পর্যন্ত পৌরসভার নয়টি কেন্দ্রে ৫০ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়েছে। আশা করছি, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আশি শতাংশের বেশি ভোট কাস্ট হবে।

তিনি বলেন, বেলা সাড়ে দশটার পর দুই/একটি কেন্দ্রের বাইরে বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনার খবর পাওয়া গেছে। স্টাইকিং ফোর্সসহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।

নির্বাচনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির প্রতীকে লড়ছেন তিনজন মেয়র প্রার্থী। অপরদিকে পৌরসভার আটটি ওয়ার্ডে সাধারণ ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডে মহিলা কাউন্সিলর পদে লড়ছেন ৩৫ জন।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনিত মো. জহিরুল ইসলাম, বিএনপির মো. শাহীন ও জাতীয় পার্টির এটিএম শহীদুল ইসলাম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

একইভাবে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২৬ জন পুরুষ এবং সংরক্ষিত ওয়ার্ডে মহিলা কাউন্সিলর পদে ৯জন প্রার্থী রয়েছে। লামা পৌর এলাকায় মোট ভোটার সংখ্যা ১৩ হাজার ৩৮৯ জন।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়