নদী খননে প্রাণ ফিরে পেয়েছে জীব বৈচিত্র্য

আগের সংবাদ

শ্রীনগর যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গ্রেপ্তার

পরের সংবাদ

ইনকিউবেশন সেন্টারে নতুন উদ্যোক্তাদের সহায়তা নিশ্চিত করার আহ্বান

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৬, ২০২১ , ৪:০৮ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৬, ২০২১ , ৪:০৯ অপরাহ্ণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নতুন প্রজন্মকে উদ্যোক্তা হিসেবে প্রস্তুত করার আহ্বান বাস্তবায়নে ঢাকা ও চট্টগ্রামের ইনকিউবেশন সেন্টারে নতুন উদ্যোক্তাদের সব ধরনের সহায়তা নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার এমপি।

শিল্প প্রতিমন্ত্রী শনিবার (১৬ জানুয়ারি) অনলাইনে জুম প্ল্যাটফর্মে এসএমই ফাউন্ডেশন কর্তৃক আয়োজিত বিজনেস ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপন এবং ব্যবস্থাপনা বিষয়ে খসড়া কৌশলপত্র চূড়ান্তকরণের লক্ষ্যে আয়োজিত ভ্যালিডেশন কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ড. মো: মাসুদুর রহমানের কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন।কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন অর্থ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব অরিজিৎ চৌধুরী ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কাজী সাখাওয়াত হোসেন ।

তিনি বলেন, সরকারের নির্বাচনী অঙ্গীকার বাস্তবায়নে এসএমই খাত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। অর্থনীতিকে শক্তিশালী করতে কুটির, ক্ষুদ্র ও মাঝারি খাতের অবদান আরও সম্প্রসারিত করার কোন বিকল্প নেই।

শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, এসএমই নীতিমালা-২০১৯ এর আওতায় এসএমই উদ্যোক্তাদের জন্য অর্থপ্রাপ্তি, প্রযুক্তি ও উদ্ভাবন, বাজারে প্রবেশ, শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ, ব্যবসায় সহযোগিতা এবং তথ্যের সুযোগ নিশ্চিত করতে শিল্প মন্ত্রণালয় তৎপর রয়েছে। শিল্প প্রতিমন্ত্রী এসময় অর্থনীতির সম্ভাব্য সকল পর্যায়ে দেশীয় পণ্য আরও অধিক পরিমাণে ব্যবহারের জন্য ভোক্তাদের প্রতি আহবান জানান। উল্লেখ্য, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় বাস্তবায়নাধীন ‘সেকেন্ড স্মল ও মিডিয়াম এন্টারপ্রাইজ ডেভেলপমেন্ট প্রকল্প (এসএমইডিপি-২) প্রকল্পের আওতায় কৌশলপত্রের খসড়া প্রস্তুত করা হয়েছে। এসএমই ফাউন্ডেশন ও বাংলাদেশ ব্যাংক প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে।

অর্থ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব অরিজিৎ চৌধুরী বলেন, এসএমই খাতের উদ্যোক্তাদের প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদানের ক্ষেত্রে এখাতের ডাটাবেজের অভাব অনুভূত হয়। এসএমই খাতের উদ্যোক্তাদের একটি ডাটাবেজ তৈরির জন্য তিনি এসএমই ফাউন্ডেশনকে আহ্বান জানান।

শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কাজী শাখাওয়াত হোসেন বলেন, যুবসমাজকে দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তর ও তাদের জন্য কর্মসংস্থান নিশ্চিত করতেএসএমই খাত বিশেষ ভূমিকা পালন করছে। ইনকিউবেশন সেন্টারে উদ্যোক্তারা প্রাথমিক বাধাসমূহ উত্তীর্ণ হয়ে স্বাবলম্বী হয়ে উঠবেন।

কর্মশালায় ন্যাশনাল ইনকিউবেশন স্ট্র্যাটেজির ওপর আলোচনা করেন এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের আন্তর্জাতিক ইনকিউবেসন বিশেষজ্ঞ হুলিয়া টেটিক (Hulya Tetik)। তিনি বলেন, এডিবি-র আর্থিক সহয়তায় ইতোমধ্যে ঢাকা এবং চট্টগ্রামে দুটি পাইলট ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপনের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ইনকিউবেশন সেন্টারগুলো হবে উদ্যোক্তা উন্নয়নের সুতিকাগার। ইন্টারন্যাশনাল ক্লাস্টার ডেভেলপমেন্ট এক্সপার্ট টবি ফিলপট (Toby Phipott) নারী উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্যসমুহের জন্য বিশেষ ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপনের প্রস্তাব করেন। এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের ডং ডং ঝ্যাং ইনকিউবেশন সেন্টার তৈরির পাশাপাশি উদ্যোক্তাদের উদ্ভাবন শক্তিকে কাজে লাগানোর পরামর্শ দেন।

কর্মশালায় ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের মো: এম করিম সকল সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনকিউবেশন কেন্দ্র স্থাপনের পরামর্শ দেন। শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোহাং সেলিম উদ্দিন সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত সকল ইনকিউবেশন সেন্টারের মাঝে সমন্বয়ের আহ্বান জানান।

মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব মো: সলিম উল্লাহ বলেন, বর্তমানে ঢাকা ও চট্টগ্রামে ইনকিউবেশন কেন্দ্র স্থাপন কর হয়েছে। আগামীতে দেশের প্রতিটি বিভাগে একটি করে ইনকিউবেশন কেন্দ্র স্থাপন করা হবে। বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব আইসিটি ইন ডেভেলপমেন্ট (বিআইআইডি) এর সিইও শহীদ উদ্দিন আকবর গ্রামাঞ্চলে এসএমই খাতকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানান।

এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের ফিনান্সিয়াল এক্সপার্ট রাশেদ আল হাসান এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় নির্মিত ঢাকা ও চট্টগ্রামে স্থাপিত ইনকিউবেশন কেন্দ্র সফলতার সাথে কাজ করছে।

এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়