অভিশংসনের প্রস্তাব কংগ্রেসে পাস

আগের সংবাদ

বাড়ছে সংঘাত-সংঘর্ষ

পরের সংবাদ

শৈলকুপায় কাউন্সিলর প্রার্থীর ভাইকে হত্যা

৪ ঘণ্টা পর লাশ হলেন প্রতিপক্ষ প্রার্থী

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৪, ২০২১ , ৬:১৫ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৪, ২০২১ , ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ

ঝিনাইদহের শৈলকুপা পৌরসভা নির্বাচনকে ঘিরে সংঘর্ষে বুধবার (১৩ জানুয়ারি) রাত ৯টার দিকে একজন নিহত হয়েছে। এ ঘটনার ৪ ঘণ্টা পর রাত ১২টার দিকে স্থানীয় কুমার নদে দেবতলা এলাকায় ৮ নং ওয়ার্ডের কমিশনার প্রার্থী আলমগীর হোসেন খাঁ বাবুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

দ্বিতীয় দফায় ঝিনাইদহ শৈলকুপা পৌরসভা নির্বাচনের আর মাত্র একদিন বাকি। এ নির্বাচনকে ঘিরে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী কাজী আশরাফুল আযম ও বিদ্রোহী প্রার্থী তৈয়বুর রহমান খানের সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাত ৯ টার দিকে শহরের কবিরপুর এলাকায় ৮নং ওয়ার্ডের বর্তমান কমিশনার শওকত আলী ও অপর প্রার্থী আলমগীর হোসেন খাঁ বাবুর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে কমিশনার শওকত আলীর ভাই লিয়াকত হোসেন মারাত্মকভাবে আহত হয়। তাকে কুষ্টিয়া হাসপাতালে নেওয়ার পথে মৃত্যু হয়। এ মৃত্যুর ঘটনার ৪ ঘণ্টা পর ৮ নং ওয়ার্ডের অপর প্রার্থী আলমগীর হোসেন খাঁ বাবুর লাশ স্থানীয় কুমার নদের দেবতালা এলাকায় ভাসতে দেখে এলাকাবাসী রাত ১২টার দিকে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশটি উদ্ধার করে।

নির্বাচনী এ ধরনের সহিংশ ঘটনায় শৈলকুপায় চরম উত্তেজনা ও আতঙ্ক বিরাজ করছে। শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার মুনতাসিরুল ইসলাম জানান, বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে, যে কোন মূল্যে নির্বাচন সুষ্ঠু পরিবেশে সম্পন্ন করার প্রত্যয়ও ব্যক্ত করেন তিনি। এদিকে সাধারণ ভোটারদের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। তারা আদৌও সুষ্ঠু পরিবেশে ভোট দিতে পারবে কিনা সে বিষয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছে।

পিআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়