প্রহার না করেই শিশুদের ইন্টারনেট থেকে ফিরিয়ে রাখতে যা করবেন

আগের সংবাদ

৪ ঘণ্টা পর লাশ হলেন প্রতিপক্ষ প্রার্থী

পরের সংবাদ

অতি হাস্যকর : ট্রাম্প

অভিশংসনের প্রস্তাব কংগ্রেসে পাস

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৪, ২০২১ , ৩:৪৪ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৪, ২০২১ , ১০:১৬ পূর্বাহ্ণ

নির্বাচনে হেরেছেন আগেই। হোয়াইট হাউস ছাড়তেও আর মাত্র ৬ দিন বাকি। এমন সময়ে অভিশংসনের মাধ্যমে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে গদিচ্যুত করার প্রশ্নে ‘অনাগ্রহ’ ব্যক্ত করেছেন দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স। এ বিষয়ে গত মঙ্গলবারই তিনি হাউসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসিকে চিঠি লিখে নিজের মত জানিয়ে দেন। পরে গত মঙ্গলবার রাতে সংবিধানের ২৫তম সংশোধনী প্রয়োগের মাধ্যমে ট্রাম্পকে গদিচ্যুত করার জন্য পেন্সকে আহŸান জানিয়ে একটি প্রস্তাব ২২৩-২০৫ ভোটে পাস করেন দেশটির আইনপ্রণেতারা। সমর্থকদের ‘খেপিয়ে দিয়ে’ ক্যাপিটল ভবনে হামলার ঘটনা ঘটানোর অপরাধে ট্রাম্পকে অভিযুক্ত করে এ পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছেন তারা।
রিপাবলিকান নেতা কেন্টাকি অঙ্গরাজ্যের সিনেটর মিচ ম্যাককনেল ইতোমধ্যেই ট্রাম্পকে অভিশংসনের পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। কারণ, এতে ট্রাম্পকে রিপাবলিকান দল থেকে বিতাড়নেও সুবিধা হবে। এছাড়া রিপাবলিকান দলের প্রায় অর্ধডজন সদস্য ইতোমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছেন, অভিশংসন প্রস্তাব উঠলে এর পক্ষে থাকবেন তারা। এদিকে, অভিশংসন প্রক্রিয়া এগিয়ে নেয়ার জন্য ডেমোক্র্যাট দলীয় নয় সদস্যের নামও ঘোষণা করেছেন ন্যান্সি পেলোসি।
অন্যদিকে, ক্যাটিল ভবনে উগ্র সমর্থকদের নজিরবিহীন হামলার ঘটনার পর প্রথমবারের মতো প্রকাশ্যে এলেও ন্যক্কারজনক ওই ঘটনার জন্য কোনো অনুতাপ দেখা যায়নি ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে। বরং অভিশংসন প্রস্তাব কার্যকর হলে ভয়াবহ পরিণতি হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি। এদিকে, ট্রাম্পের ‘কাণ্ডজ্ঞানশূন্য’ আচরণের জন্য ৭ দিনের জন্য তাকে ‘নিষিদ্ধ’ রেখেছে ইউটিউব।
সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট ডিক চেনির মেয়ে ও প্রতিনিধি পরিষদের রিপাবলিকান সদস্য লিজ চেনিসহ বেশ কয়েকজন রিপাবলিকান নেতা সরাসরি অভিশংসনের পক্ষে ভোট দেবেন বলে জানিয়ে দিয়েছেন। রিপাবলিকান সিনেটর প্যাট টুমিও ট্রাম্পের পদত্যাগ দাবি করেছেন। আরেক রিপাবলিকান সদস্য পিটার মেজার বলেন, তিনি ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ভোট দেবেন। কেননা, ট্রাম্প শাসন করার যোগ্যতা হারিয়েছেন। মার্কিন সংবিধানে ২৫তম সংশোধনী এমন একটি প্রক্রিয়া যার মধ্য দিয়ে ট্রাম্পকে ‘দায়িত্ব পালনে অক্ষম’ বলে ঘোষণা করা যাবে। এরপর তার মেয়াদের বাকি দিনগুলো ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন ভাইস প্রেসিডেন্ট পেন্স। তবে তা করতে রাজি নন তিনি। পেলোসির কাছে পাঠানো চিঠিতে তিনি বলেন, প্রেসিডেন্টের মেয়াদ শেষ হওয়ার আর ৮ দিন বাকি আছে। ডেমোক্র্যাটিক ককাস এবং আপনি চাইছেন মন্ত্রিপরিষদসহ আমি যেন ২৫তম সংশোধনী প্রস্তাব উত্থাপন করি। কিন্তু আমি মনে করি না এ ধরনের কর্মকাণ্ডে আমাদের জনগণের সর্বোত্তম স্বার্থ সুরক্ষিত হবে এবং তা আমাদের সংবিধানের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ হবে। আমাদের সংবিধানে সাজা প্রদান কিংবা অন্যায়ভাবে অধিগ্রহণের জন্য ২৫তম সংশোধনী রাখা হয়নি। এভাবে ২৫তম সংশোধনী উত্থাপন করা হলে, সেটাও হবে এক নজিরবিহীন ঘটনা।

ডিসি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়