রৌমারীতে হঠাৎ বাসে আগ্নিকাণ্ড

আগের সংবাদ

শীতার্তদের পাশে দাঁড়ান

পরের সংবাদ

ঘর পাচ্ছে ৬৫১ গৃহহীন পরিবার

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৬, ২০২১ , ৯:৪৭ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ৬, ২০২১ , ৯:৫৯ অপরাহ্ণ

“আশ্রয়নের অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার” মুজিব শতবর্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় পাকা ঘর পাচ্ছে ৬৫১টি গৃহহীন পরিবার। যাদের জমি ও ঘর নেই গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পের আওতায় স্থানীয় প্রশাসনের তত্বাবধানে তাদের এসব ঘর দেয়া হচ্ছে।

উপজেলা প্রশাসন জানায়, মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে আখাউড়া উপজেলায় ৬৫১টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে পুনর্বাসন করা হবে। প্রথম পর্যায়ে উপজেলার মোগড়া ইউনিয়নের চর নারায়ণপুর গ্রামে ৪৫টি ভূমিহীন পরিবারকে পূনর্বাসন করতে জমির বন্দোবস্তসহ পাকা ঘর নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে।

বুধবার (৬ জানুয়ারি) বিকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক হায়াদ -উদ- দৌলা খাঁন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নূরে – এ – আলম, উপজেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনার সাইফুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা তাপশ চক্রবতী ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাসহ জনপ্রতিনিধিরা কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা তাপশ চক্রবর্তী জানান, প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে এক লাখ ৭১ হাজার টাকা। ইটের দেওয়াল, কংক্রিটের মেঝে ও টিনের ছাউনি দিয়ে এসব ঘর তৈরি করা হচ্ছে। এসব সেমিপাকা ঘরে দুটি শয়নকক্ষ, একটি খোলা বারান্দা, একটি রান্নাঘর ও একটি শৌচাগার থাকবে।তিনি আরো জানান আগামী ১৫ জানুয়ারির মধ্যে ২ শতাংশ জমি বন্দোবস্তসহ এসব নতুন ঘর গৃহহীনদের বুঝিয়ে দেয়া হবে।

মোগড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মনির হোসেন বলেন, ঘর নির্মাণ কাজ খুব দ্রুত এগিয়ে চলছে। প্রশাসন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে সমন্বয় করে নির্মাণ কাজের তত্বাবধান করছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নূরে – এ -আলম বলেন, উপজেলার ভূমিও গৃহহীন ৬৫১টি পরিবারকে পুনর্বাসন করা হবে। চর নারায়ণপুর মৌজার সরকারি খাস জমিতে প্রাথমিক পর্যায়ে ৪৫টি পরিবারকে পূনর্বাসন করা হচ্ছে। সরকারের বেধে দেয়া সময়ের মধ্যেই ঘরের নির্মাণ কাজ শেষ করা হবে। বাকিদের পর্যায়ক্রমে জমি বন্দোবস্তসহ ঘর নির্মাণ করে দেয়া হবে।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়