জয়ের মুখ দেখল ঢাকা

আগের সংবাদ

পাওনাদী পেতে শুরু করেছে বাংলাদেশ জুট মিলের শ্রমিকরা

পরের সংবাদ

শচিনকে টপকে গেলেন কোহলি

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২, ২০২০ , ৮:৫৯ অপরাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ২, ২০২০ , ৯:০০ অপরাহ্ণ

ক্রিকেটে একের পর এক রেকর্ড নিজের নামে করে নিচ্ছেন সময়ের সেরা ক্রিকেটার বিরাট কোহলি। অস্ট্রেলিয়া বনাম ভারতের চলমান ওয়ানডে ম্যাচ দিয়ে আরো একটি রেকর্ডে নাম লেখানেল তিনি। ওয়ানডের ইতিহাসে তিনিই এখন ১২ হাজারি ক্লাবে সবচেয়ে দ্রুততম ব্যাটসম্যান। মাত্র ২৪২ ইনিংসে এই রেকর্ড ছুঁলেন কোহলি। তার আগে ৩০০ ইনিংসে ১২ হাজার রান করার রেকর্ডটি ছিল শচিন টেন্ডুলকারের দখলে।

আজ ম্যাচের আগে ১২ হাজার রান করার থেকে মাত্র ২৩ রান দূরে ছিলেন বিরাট কোহলি। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তৃতীয় ও সর্বশেষ ওয়ানডে ম্যাচে ৬৩ রান করে ১২ হাজারি ক্লাবে ঢুকে গেলেন তিনি। ওয়ানডেতে এখন তার মোট রান ১২ হাজার ৪০। ১২ হাজারি ক্লাবে যোগ দেয়ার দৌড়ে কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান শচিনের চেয়ে ৫৮ ইনিংস কম লেগেছে বিরাটের। লিটল মাস্টারের মোট ওয়ানডে রান ১৮ হাজার ৪২৬। এই রান করতে তার লেগেছে ৪৬৩ ম্যাচের ৪৫২ ইনিংস।

এই তালিকায় কোহলি ও শচিনের পর ৩ নম্বরে আছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিং। ৩১৪ ইনিংসে ওয়ানডের ১২ হাজার পূর্ণ করেছিলেন তিনি। তার মোট ওয়ানডে রান ১৩ হাজার ৭০৪। সেরা পাঁচের বাকি দুজনই শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার। তারা হলেন- শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা ও সনাৎ জয়াসুরিয়া। ১২ হাজারি ক্লাবে প্রবেশ করতে সাঙ্গাকারার লেগেছে ৩৩৬ ইনিংস। ৩৭৯ ইনিংসে ১২ হাজার করেন সনাৎ জয়াসুরিয়া। উল্লেখ্য, আগের ওয়ানডেতেই বড় এক মাইলফলকে স্বদেশী শচিনকে হটিয়ে সবার ওপরে জায়গা করে নেন বিরাট কোহলি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২২ হাজার রান পূর্ণ করেন শচিনের চেয়ে ৩১ ইনিংস কম খেলেই।

এ ম্যাচ সমাপ্তির সঙ্গে সঙ্গে একটি লজ্জার রেকর্ডও করেছেন ভারত অধিনায়ক। ২০০৮ সালে ওয়ানডে অভিষেকের পর প্রত্যেক বছরই সেঞ্চুরির দেখা পেয়ে এসেছেন তিনি। ভারতের এটিই বছরের শেষ ওয়ানডে বিধায় কোহলির আর ২০২০ এ সেঞ্চুরি করার সুযোগ নেই। ৯টি ওয়ানডে খেলে সেঞ্চুরি ছাড়াই বছর শেষ করতে হচ্ছে তাকে।

দুই রকম অভিজ্ঞতার দিনে বিরাট কোহলির সঙ্গে তার স্ত্রীর ১টি ছবিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। যা ছড়িয়েছে কোহলি স্ত্রী আনুশকা শর্মার ইনস্টাগ্রাম পেজ থেকে। ছবিতে দেখা যায়, বিরাট কোহলি গর্ভবতী আনুশকার পা দুটো ধরে উপরের দিকে ঝুলিয়ে রেখেছেন। আনুশকা মাথা ঠেকিয়ে রেখেছেন মেঝের সঙ্গে।

ইনস্টাগ্রামে ছবিটি শেয়ার করে আনুশকা লিখেছেন, ‘অনুশীলন, হাত-পা উপর-নিচ করা। কঠিন একটি কাজ। যোগব্যায়াম আমার জীবনে গুরুত্বপূর্ণ একটি কাজ। আমার ডাক্তার পরামর্শ দিয়েছেন গর্ভবতী সত্তে¡ও যোগব্যায়াম করতে কোনো সমস্যা নেই।’

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়