বাঁশখালীতে জলকদর খাল দখল করে ৬ তলা ভবন

আগের সংবাদ

তেঁতুলিয়া থেকে টেকনাফ পৌছল একশ সেনা সাইক্লিক

পরের সংবাদ

মামলার বাদী পক্ষকে আসামি পক্ষের হাতুড়ি পেটা

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১, ২০২০ , ১০:৩৩ অপরাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ১, ২০২০ , ১০:৩৬ অপরাহ্ণ

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার পরমেশ্বরদী গ্রামে বাড়িঘর ভাংচুর ও হামলায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর পেটের বাচ্চা নষ্ট করা মামলায় বাদীর সমর্থককে হাতুড়ি পেটা করেছে আসামি পক্ষের লোকজন। মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে উপজেলার পরমেশ্বরদী ইউনিয়নের পরমেশ্বরদী গ্রামের ঈদগাহ রোডের কালভার্টের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

এ ব্যাপারে আহতের বড় ভাই জাহাঙ্গীর মোল্যা (৩৯) জানান, গত ২৭ নভেম্বর উপজেলার পরমেশ্বরদী গ্রামে জমা-জমি ও আধিপত্য নিয়ে রিপন মিয়া ও সরোয়ার খান গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে রিপন মিয়ার ভাই অহিদ মিয়ার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর প্রতিপক্ষের লোকজনের আঘাতে পেটের বাচ্চা নষ্ট হয়ে যায় বলে অভিযোগ করেন। এ ঘটনায় ৩০ নভেম্বর অহিদ মিয়া বাদী হয়ে ৫ জনকে আসামি করে বোয়ালমারী থানায় মামলা করে। এর জের ধরে রিপন মিয়ার সমর্থক পরমেশ্বরদী গ্রামের আনোয়ার মোল্যা (৩৫) মঙ্গলবার দুপুরে ময়েনদিয়া হাট থেকে বাড়ি ফেরার পথে জিহাদ মিয়া, আরিফ মিয়া, ইমরান মুন্সি, আরমান মুন্সি, আনিস মিয়াসহ মোট সাত জন দেশীয় অস্ত্র ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে। এ সময় আনোয়ারের কাছে থাকা পাট বিক্রির ৯ হাজার টাকাও ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

আহত আনোয়ারকে উদ্ধার করে বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আমরা রিপন মিয়ার গ্রুপের লোক বলে মামলা করার কারণে আমার ভাইকে হাতুড়ি দিয়ে মারধর করেছে।

এ ব্যাপারে ছরোয়ার খাঁন মোবাইল ফোনে জানান, কয়েকদিন আগে আনোয়ার আমার লোকজনকে মারধর করেছিল। সে কারণে আমার লোকজন আনোয়ারকে মারধর করেছে বলে শুনেছি।

এ ব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ নুরুল আলম বলেন, মারধরের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ডিসি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়