নিজেকে ঝালিয়ে নিলেন মাশরাফি

আগের সংবাদ

চট্টগ্রাম স্টেডিয়াম পরিদর্শনে উইন্ডিজ প্রতিনিধিদল

পরের সংবাদ

করোনা মুক্ত জেমি ডে কাতার যাচ্ছেন

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১, ২০২০ , ৭:০২ অপরাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ১, ২০২০ , ৭:০৫ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশের প্রধান কোচ জেমি ডে ডাগআউটে থাকলেই বাড়তি উদ্দীপনা পাওয়া যায়। কাতারে অবস্থান করা ফুটবলারদের মন্তব্য ছিল এরকম। কাতারের বিপক্ষে বিশ^কাপ ও এশিয়া কাপের বাছাইয়ের ম্যাচটিতে তিনি না থাকলে বেশ বড় প্রভাব পড়বে এমন মন্তব্য করেছিলেন বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। প্রধান কোচ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দলের সঙ্গে কাতার না যেতে পারার কারণে এই কথাগুলো শোনা গিয়েছিল।

বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে নেপালের বিপক্ষে ২ ম্যাচের সিরিজ খেলার সময়ই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন জেমি ডে। ম্যাচগুলো ছিল যথাক্রমে ১৩ ও ১৭ নভেম্বর। ফলে ধারণা করা হয়েছিল তিনি দ্রুত সেরে উঠে কাতারে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। কিন্তু এরপর টানা ২ বার তার করোনা পরীক্ষার ফল পজেটিভ আসে। ফলে শেষ পর্যন্ত তার কাতারে যাওয়ার ব্যাপারটিই অনিশ্চিত হয়ে যায়। তবে অবশেষে করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পেয়েছেন তিনি। আর এ কারণে কাতারে গিয়ে এখন তিনি তার শিষ্যদের সঙ্গে যোগ দিতে পারবেন। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে তিনি আগামীকাল কাতারে যাবেন।

আর ফুটবলাররা যেহেতু জানিয়েছিলেন জেমি না থাকলে বড় প্রভাব পড়বে ও উদ্দীপনা পাওয়া যাবে না। সেই সমস্যা এখন কেটে গেছে। সব কিছু ঠিক থাকলে কাতারের বিপক্ষে এই ম্যাচটিতে তিনি তার শিষ্যদের কাছেই দাঁড়িয়ে নির্দেশনা দিবেন। ফলে করোনা নেগেটিভ হওয়া জেমি ডের ছোঁয়া পেতে যাওয়ায় এখন পজেটিভ ফলের আশা করছে বাংলাদেশ দল। কাতারের বিপক্ষে পজেটিভ ফলাফলের জন্য বাংলাদেশকে সেরার চেয়েও বেশিটা দিতে হবে। একে তো তারা বর্তমানে এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন তার ওপর বিশ^কাপের আয়োজক।

কাতারে বর্তমানে বাইরের দেশ থেকে যারাই যান তাদের প্রথম ৩ দিন বাধ্যতামূলকভাবে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হয়। জেমি ডে কাতার পৌঁছাবেন আজ ২ ডিসেম্বর, আর খেলা ৪ ডিসেম্বর। ফলে তিনি যদি ৩ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকেন তাহলে আর ডাগআউটে দাঁড়াতে পারবেন না। তবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন এ ব্যাপারে কাতারের মন গলানোর চেষ্টা করছে। তারা চাইছে জেমি ডের ক্ষেত্রে এই নিয়মটা একটু শিথিল করা হোক। নয়তো যে তার কাতার যাওয়ার পুরো ব্যাপারটিই বৃথা যাবে।

এদিকে করোনার মধ্যেই যেহেতু বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপের বাছাই পর্বের এই ম্যাচটি আয়োজন করা হচ্ছে ফলে করোনা নিরাপত্তার ক্ষেত্রে বেশ সিরিয়াস কাতার ফুটবল ফেডারেশন। তারা এতটাই সিরিয়াস যে বাংলাদেশ ও কাতারের মধ্যকার এই ম্যাচটিতে তারা প্রেস বক্সে কোনো সাংবাদিককে খেলা দেখার সুযোগ দেবে না। এই ম্যাচটি কাভার করতে বাংলাদেশ থেকে বেশ কয়েকজন সাংবাদিক কাতারে গেছেন। কিন্তু তাদের কপালটাই খারাপ। মাঠে বসে খেলা দেখতে মরুর দেশটিতে পাড়ি দিলেও এখন হোটেলের রুমে বসে টিভি পর্দাতে খেলাটি উপভোগ করতে হবে তাদের।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়