করোনায় আক্রান্ত নায়ক পরিবার

আগের সংবাদ

মুজিববর্ষের চারা নিয়ে নয়ছয়, সংবাদ প্রকাশের পর আবার বিতরণ

পরের সংবাদ

তুর্কী জাহাজে তল্লাশি, তাৎক্ষণিক ৩ রাষ্ট্রদূতকে ডেকে প্রতিবাদ

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৪, ২০২০ , ১:৫২ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২৪, ২০২০ , ১:৫২ অপরাহ্ণ

পূর্ব ভূমধ্যসাগরে লিবিয়া-অভিমুখী তুরস্কের বাণিজ্যিক জাহাজ ‘রোজেলিন’-এ জার্মান নৌবাহিনীর সদস্যরা অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ করে এটিতে তল্লাশি চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে তুরস্ক। তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় আঙ্কারায় নিযুক্ত ইউরোপীয় ইউনিয়ন বা ইইউ, জার্মানি ও ইতালির রাষ্ট্রদূতদের তলব করেছে তুর্কি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

তুর্কি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, রবিবার গ্রিসের পেলোপোনিস উপত্যকার কাছে দেশটির জাহাজে যে তল্লাশি চালানো হয়েছে তা আন্তর্জাতিক আইনের সম্পূর্ণ লঙ্ঘন; কারণ, আন্তর্জাতিক পানিসীমায় এ ধরনের তল্লাশি চালানোর কোনও অধিকার কারও নেই। রোজেলিন জাহাজে করে লিবিয়ায় খাদ্যসামগ্রী ও রঙ পরিবহন করা হচ্ছিল বলে তুরস্কের নিরাপত্তা বিষয়ক সূত্র থেকে জানা গেছে।

মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হামিদ আকসাভি অভিযোগ করেছেন, জার্মান নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ ‘হামবুর্গ’ থেকে দেশটির নৌসেনারা রোজেলিনে অনুপ্রবেশ করে এবং এটির ক্যাপ্টেনসহ সব নাবিককে অস্ত্রের মুখে বন্দি করে রাখে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তুরস্ক সরকারের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের কাছে অভিযোগ জানানো হলে তল্লাশি অভিযান অসমাপ্ত রেখেই জার্মান নৌসেনারা তুর্কি বাণিজ্যিক জাহাজ ত্যাগ করে চলে যায়।

জার্মানির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দাবি করেছে, দেশটির নৌবাহিনী ইইউর পক্ষ থেকে নিযুক্ত ‘আইরিনি’ বাহিনীর হয়ে ভূমধ্যসাগরে টহল দিচ্ছিল। যুদ্ধ-কবলিত লিবিয়ায় অবৈধ অস্ত্রের চালান প্রতিহত করার জন্য ‘আইরিনি’ বাহিনী গঠিত হয়েছে।

জার্মান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, তারা তুর্কি জাহাজে অস্ত্র আছে বলে সন্দেহ করে এটিতে তল্লাশি চালাতে যায়। কিন্তু জাহাজের নাবিকদের বাধার মুখে তাদের দায়িত্ব অসমাপ্ত রেখেই সেটি থেকে নেমে যায়।

এমআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়