ডুমুরিয়া থেকে হারিয়ে গেছে চিরচেনা বাবুই পাখি

আগের সংবাদ

মহাখালীর ৭ তলা বস্তিতে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ১২ ইউনিট

পরের সংবাদ

রাস্তাঘাটে ছেলেদের উত্যক্ত করেন সাবিলা

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৩, ২০২০ , ১১:০৪ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২৩, ২০২০ , ১১:০৪ অপরাহ্ণ

অভিনেতা অপূর্ব ও তার বাবা রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন। এমন সময় অপূর্বের বাবা তাকে বললেন, সামনে কতগুলো মেয়ে দাঁড়িয়ে আছে। তারা ছেলেদের কিডন্যাপ করে নিয়ে যায়। আর সেই উত্যক্তকারী কে? সাবিলা নূর। সাবিলা নূরের উত্যক্তের ভয়ে সন্তান অপূর্বকে সাবধান করছেন তারা বাবা। ইভটিজিংয়ের বিরুদ্ধে এভাবেই সাজানো হয়েছে নাটকটিকে।

ইভ টিজিং বা উত্যক্ত করা, এই বিষয়টি সাধারণত ঘটে ছেলেদের পক্ষ থেকে। যার শিকার হন মেয়েরা। এমন খবর প্রায় প্রতিদিন পাওয়া যায় গণমাধ্যমে। তবে এবার দেখা যাবে একেবারে বিপরীত চিত্র। যেখানে দেখা যাবে মেয়েরা উত্যক্ত করছে ছেলেদের। বিয়ের জন্য ছেলেকে বাসায় দেখতে আসছে মেয়ে পক্ষ! আবার ছেলেরা ম্যানেজ করছে সংসার, স্ত্রীরা করছে অফিস।

ঠিক এমনই একটি বিপরীত চিত্র নিয়ে নাটক নির্মাণ করেছেন রুবেল হাসান। ‘এক্সচেঞ্জ’ নামের এই নাটকটি রচনা করেছেন মেজবাহ উদ্দীন সুমন। আর এর প্রধান দুই চরিত্রে অভিনয় করেছেন জিয়াউল ফারুক অপূর্ব ও সাবিলা নূর।

মজার এই নাটকটি সোমবার (২৩ নভেম্বর) বিকাল ৪টায় উন্মুক্ত হলো প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সিএমভি’র ইউটিউব চ্যানেলে। যেখানে দেখা যায়, সাবিলা নূর তার বন্ধুদের নিয়ে রাস্তায় উত্যক্ত করছেন অপূর্বকে!

কাজটি প্রসঙ্গে এর নির্মাতা রুবেল হাসান বলেন, ‘এটা মূলত ইভ টিজিং এর প্রতিবাদস্বরূপ নির্মাণ করেছি। ছেলেরা যেভাবে প্রতিনিয়ত মেয়েদের উত্যক্ত করে, সেটি থেকে উত্তরণের পথ দেখানোর চেষ্টা করেছি আমরা। চেয়েছি, ছেলেরা যেন মেয়েদের কষ্টটা অনুভব করতে পারে।’ নাটকটি প্রযোজনা করেছেন এসকে সাহেদ আলী পাপ্পু।

কাজটি প্রসঙ্গে সাবিলা নূরের অভিমত এমন, ‌‘ইভ টিজিংয়ের বিরুদ্ধে এই নাটকটি প্রতীকী প্রতিবাদের মতো। আমার বিশ্বাস, নাটকটি দেখার পর কোনও ছেলে বা পুরুষ কখনো আর কোনও মেয়েকে উত্যক্ত বা টিজ করবে না। তবেই আমাদের পরিশ্রম সার্থক হবে।’

এমআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়