প্রথম ধাপে ২৫ পৌরসভায় ভোট ২৮ ডিসেম্বর

আগের সংবাদ

এনজিও’র ঋণ শোধ করতে সুবুরের হাড় ভাঙা পরিশ্রম

পরের সংবাদ

গাছে বেধেঁ নির্যাতন, হাসপাতালে মৃত্যু শয্যায় কলেজ শিক্ষার্থী

প্রকাশিত: নভেম্বর ২২, ২০২০ , ৪:৪৮ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২২, ২০২০ , ৪:৪৯ অপরাহ্ণ

হবিগঞ্জ জেলার বাহুবলের দ্বিমুড়া গ্রামে গাছে বেধেঁ মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের শিকার হয়েছেন অনার্স পড়ুয়া এক কলেজ শিক্ষার্থী। তার নাম ফয়সাল। তিনি বৃন্দাবন সরকারি কলেজের অনার্স (গণিত বিভাগ) চতুর্থ বর্ষের ছাত্র। ফয়সল চুনারুঘাট উপজেলার হাসেরগাঁও গ্রামের আহসান উল্ল্যার ছেলে।

বর্তমানে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শয্যায় মৃত্যুর প্রহর গুনছে। দীর্ঘ দিন সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ফয়সলের মা বাদী হয়ে দ্বিমুড়া গ্রামের আব্দুল হাইর স্ত্রী জাহানারা আক্তার লিপি ও মেয়ে লিজাসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ করে বাহুবল থানায় মামলা করে। পরে পুলিশ আব্দুল হাইর ভাতিজা এমরানসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেন।

তবে ঘটনার মূল নায়ক ফখরুলকে এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। তবে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফুয়াদ মিয়া।

ফয়সলের ভাই কাউছার মিয়া জানান, মাথায় প্রচণ্ড আঘাতের কারণে তার স্মৃতি শক্তি হারিয়ে ফেলেছে। দুই সপ্তাহ অতিবাহিত হলেও ফয়সলের তেমন কোন উন্নতি হয়নি। এখনও জ্ঞান ফেরেনি। ফয়সলের পরিবার সাধ্য মতো চেষ্টা করে যাচ্ছে তাকে সুস্থ করে তোলার জন্য। ফয়সলকে রাতদিন তার পরিবার ছায়ার মতো ঘিরে রেখেছে। প্রেমিকা লিজার পরিবারের কারণে আজ এই অবস্থ। ফয়সলের খাওয়া-দাওয়া বন্ধর কারণে যেকোন সময় মৃতুর কোলে ঢলে পড়তে পারে বলে চিকিৎসকরা জানান।

প্রসঙ্গত, ৩০ অক্টোবর দিবাগত রাতে উপজেলার লামাতাসী ইউনিয়নের দ্বিমুড়া কুয়েত প্রবাসী আব্দুল হাইর বাড়িতে কলেজ ছাত্রকে খুঁটিতে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করা হয়। ১ নভেম্বর সকালে ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে সারাদেশ জুড়ে শুরু হয় তোলপাড়। ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, কয়েকজন লোক ফয়সলকে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন করছে। এ সময় ফয়সল বাঁচার জন্য আকুতি করছিল। কিন্তু এরপরও চলে বর্বর নির্যাতন।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়