গণজাগরণের অপেক্ষায় আছি: গয়েশ্বর

আগের সংবাদ

হাত পা বেঁধে রেখে সন্তানকে লালন পালন করছেন মা

পরের সংবাদ

যাত্রাবাড়িতে গৃহবধূ দগ্ধ, আইসিইউতে ভর্তি

প্রকাশিত: নভেম্বর ২০, ২০২০ , ৪:০৫ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২০, ২০২০ , ৪:০৫ অপরাহ্ণ

রাজধানীর দক্ষিণ যাত্রাবাড়ি ধোলাইপাড় এলাকায় একটি বাসায় কেরোসিন ঢেলে নিজের গায়ে আগুন দিয়ে শারমিন আক্তার (২০) নামে এক গৃহবধু দগ্ধ হয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে ধোলাইপাড় কবরস্থান রোড ২০৫ নম্বর বাসার ৩য় তলায় এই ঘটনা ঘটে।

হাসপাতালে সঙ্গে থাকা দগ্ধ শারমিনের খালাতো বোন আফরোজা আক্তার জানান, তিন বছর আগে পিকআপ ভ্যান চালক রমজান আলীর সাথে শারমিনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর যাত্রাবাড়ী কুতুবখালীতে স্বামীর বাসায় থাকতো সে। গতবছর তাদের একটি বাচ্চা হলেও ৪দিন পর বাচ্চাটি মারা যায়। তার স্বামী রমজান মাদকাসক্ত ছিল। স্বামী ও শাশুড়ির সাথে পারিবারিক কলহের কারণে গত কয়েক মাস যাবৎ শারমিন ধোলাইপাড় তার বাবা আব্দুল মান্নান ও মা নিলুফা বেগমের সাথে থাকতো।

তিনি আরো জানান, সাংসারিক কারণে শারমিন মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিল। এই কারণে আজ দুপুরে বাবা মা বাসায় না থাকায় একা বাসায় গায়ে কেরোসিন ঢেলে নিজেই আগুন ধরিয়ে দেয় সে। পরে আশপাশের ভাড়াটিয়ারা দেখতে পেয়ে তাকে দ্রুত বার্ন ইনস্টিটিউটে নিয়ে যান।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পে পরিদশর্ক মো. বাচ্চু মিয়া কর্তব্যরত চিকিৎসকের বরাত দিয়ে জানান, শারমিনের শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে গেছে। তাকে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা খুবই শঙ্কটাপন্ন।

পিআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়
close