কে খুনি

আগের সংবাদ

শাড়ির জমিনে ক্লান্তি ঝিমায়

পরের সংবাদ

স্পিকারের সঙ্গে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ

প্রকাশিত: নভেম্বর ১৯, ২০২০ , ৮:৪৩ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ১৯, ২০২০ , ৮:৪৩ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি-এর সাথে বৃহষ্পতিবার (১৯ নাভেম্বর) তার সংসদ ভবনস্থ কার্যালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি শিউআখ সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।সাক্ষাৎকালে তারা দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও ব্যবসা বাণিজ্যের প্রসার, কোভিডকালীন বাংলাদেশে অনুষ্ঠেয় সংসদ অধিবেশন, বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়ন, অভিবাসন ইস্যু, এসডিজি অর্জনে বাংলাদেশের অগ্রগতি প্রভৃতি নিয়ে আলোচনা করেন।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, কোভিডকালীন সময়ে সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কারণে অনুষ্ঠেয় অধিবেশনে কোভিড টেস্টসহ সকল কার্যক্রমে সতর্কতা অবলম্বন করা হয়েছে। রাষ্ট্রদূত নাথালি শিউআখ এসময় সকল রকম সতর্কতা মেনে সফলতার সাথে অধিবেশন সম্পন্ন করায় স্পীকারের প্রশংসা করেন।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ নারীর ক্ষমতায়নের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। কেননা, বর্তমানে সংসদে ২৩ জন নির্বাচিত নারী সংসদ সদস্য এবং ৫০ জন সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য বিদ্যমান। প্রধানমন্ত্রী, বিরোধীদলীয় নেত্রী, স্পীকার-এর তিন জনই নারী। ভাষা আন্দোলন থেকে মহান মুক্তিযুদ্ধ পর্যন্ত নারীদের ভূমিকা অসামান্য। বর্তমানে সংসদ সদস্যগণ বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ, শিশুমৃত্যুহার হ্রাস, মাতৃমৃত্যুহার হ্রাসসহ বিভিন্ন সামাজিক ব্যাধি প্রতিরোধে নিজ নিজ এলাকায় উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখে চলেছেন। ইউএনডিপি বাংলাদেশের সহায়তায় উদ্ভাবিত ‘মাই কনস্টিটিউয়েন্সি’ এপ এক্ষেত্রে সাহায্য করছে।

স্পীকার বলেন, অনেক সমস্যা থাকা সত্ত্বেও মায়ানমারের রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আশ্রয় দিয়ে ও তাঁদের প্রতি মানবিক ভূমিকা রেখে বিশ্বের বুকে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন ‘মানবতার মা’ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কোভিডকালীন সময়েও অর্থনৈতিক উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় এবং বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষের দৈনন্দিন জীবন স্বাভাবিক রাখতে প্রণোদনা ঘোষণার মাধ্যমে সময়োপযোগী কার্যক্রম গ্রহণ করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।

রাষ্ট্রদূত নাথালি শিউআখ রাজনীতিসহ সকল ক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ, কোভিডকালীন সময়ে সরকারের অর্থনীতির চাকা সচল রাখার প্রচেষ্টা এবং এসডিজি অর্জনে বাংলাদেশের অগ্রগতির প্রশংসা করেন।

স্পীকার বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও ব্যবসা বাণিজ্যের প্রসারে সুইজারল্যান্ডের ধারাবাহিক সহযোগিতা কামনা করেন। নাথালি শিউআখ বাংলাদেশকে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বন্ধুপ্রতীম দেশ হিসেবে অভিহিত করে বলেন, পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রতিবেশী দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। এসময় সংসদ সচিবালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

এমআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়