কর্তৃপক্ষের অবহেলায় হাসপাতালে নবজাতকের মৃত্যু!

আগের সংবাদ

ব্যারিস্টার রফিকের মৃত্যুতে আইজিপির শোক

পরের সংবাদ

তাড়াইলে শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু

প্রকাশিত: অক্টোবর ২৪, ২০২০ , ৩:১৯ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২৪, ২০২০ , ৩:১৯ অপরাহ্ণ

কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলার রাউতি ইউনিয়নের মৌগাও গ্রামের  মানিক মিয়ার মেয়ে মাইসা (৭) নামে এক শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে তাড়াইল থানা পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার  রাউতির ইউনিয়নের দেওতান গ্রামের  পীর মরহুম  বারী শাহের দরগার সামনে দীর্ঘদিন ধরে আস্তানা তৈরি করে পীরের দায়িত্ব পালন করছেন তারই মুরিদ লুৎফর রহমান। ওই পীরের দরগার খাদেম হিসেবে কাজ করেন মানিক মিয়া ও তার  স্ত্রী। তাদের সাথেই থাকতো দুই ছেলে-মেয়ে।

শিশুটির বাবা-মায়ের দাবি, ২৩ অক্টোবর শুক্রবার বিকেলে দরগার ভেতর একটি খালি রুমে মাইসাসহ দুই শিশু খেলা করছিল। মাইসা বউ সাজতে গিয়ে জানালার সঙ্গে একটি ওড়না বেঁধে এর এক পাশ গলায় জড়ায়। এ সময় সে পা পিছলে চৌকি থেকে পড়ে গেলে গলায় ফাঁস লেগে যায়। আহত অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করে তার বাবা- মা তাকে তাড়াইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত  চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন।

তাড়াইল থানা অফিসার ইনচার্জ  মো. মুজিবুর রহমান বলেন, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে  খেলা করার সময় ফাঁস লেগে তার মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সন্ধ্যায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। আজ ২৪ অক্টোবর শনিবার সকালে শিশুটির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর শিশুটির মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। তবে এব্যাপারে তাড়াইল থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে।

এমআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়
close