জীবনানন্দের ব্যক্তিজীবনের ছায়া যে উপন্যাসে

আগের সংবাদ

দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে পুলিশের নিরাপত্তা পরামর্শ

পরের সংবাদ

ব্যর্থতার ভিড়ে উজ্জ্বল মুশফিক

প্রকাশিত: অক্টোবর ২২, ২০২০ , ৯:৩৪ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২২, ২০২০ , ৯:৩৪ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের খেলায় ফেরানোর জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বিসিবি ৩ দল নিয়ে বিসিবি প্রেসিডেন্ট কাপের আয়োজন করে। রাউন্ড রবিন পদ্ধতিতে হওয়া এই লিগের ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছেন নাজমুল শান্ত একাদশ ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ একাদশ। ৩ দলের মধ্যে ৩টি ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থানে থেকে তবেই ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে নাজমুল শান্ত একাদশ। আর নাজমুল একাদশের এই সাফল্যে সবচেয়ে বড় অবদান রেখেছেন মুশফিকুর রহিম। তিনি ৪টি ম্যাচ খেলে ২টি ম্যাচে হাফসেঞ্চুরি ও একটি ম্যাচে সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন। তিনিই এই টুর্নামেন্টে একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন।

বিসিবি প্রেসিডেন্ট কাপে তারকা ব্যাটসম্যানরা ধারাবাহিক পারফরমেন্স দেখাতে পারেননি। তারা এক ম্যাচে ভালো খেলেছেন তো আরেক ম্যাচে অল্পতেই থেমে গেছেন। কিন্তু এদিক দিয়ে সবার চেয়ে ব্যতিক্রম ছিলেন মুশফিক। তিনি মাহমুদউল্লাহ একাদশের বিপক্ষে মাত্র ১ রান করে আউট হয়ে যান। এর পরের ম্যাচে তামিম একাদশের বিপক্ষে করেন ১০৩ রান। এরপর মাহমুদউল্লাহ একাদশের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে করেন ৫২ রান। তামিম একদশের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করা মুশফিক তামিম একদশের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচেও হাফসেঞ্চুরি করেন। এই ম্যাচটিতে তিনি করেন ৫১ রান। ৪ ম্যাচ শেষে সব মিলিয়ে তার রান ২০৭।

তবে অন্য তারকা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে লিটন দাশ, সৌম্য সরকার ও তামিম ইকবালের কথা বলতে হয়। তাদের এই ৩ জনকেই ব্যর্থ বলা যায়। লিটন ৪ ম্যাচ খেলে মাত্র ৪৩ রান করেন। সৌম্য সরকার ৪ ম্যাচ খেলে করেন ৪৫ রান। অপরদিকে প্রথম ৩ ম্যাচ মিলিয়ে ৪৪ রান করা তামিম শেষ ম্যাচে নাজমুল একাদশের বিপক্ষে ৫৭ রান করেন। কিন্তু বৃথা যায় তার এই রান। কারণ শেষ ম্যাচটিতে তার দল ১০ রানে হেরে যায়। ফলে তাদের ফাইনালেও ওঠা হয়নি।

যখন করোনা ভাইরাসের কারণে দেশের সব ধরনের ক্রিকেটীয় কার্যক্রম বন্ধ ছিল তখন মুশফিকুর রহিম নিজ উদ্যোগে অনুশীলনে নেমে পড়েন। তিনি সর্বপ্রথম তার বাসার সামনের রাস্তায় রানিং করার মাধ্যমে অনুশীলন শুরু করেন। এরপর স্থানীয় একটি মাঠে ব্যাট হাতে নেমে পড়েন তিনি। তার আগ্রহ দেখে পরবর্তী সময় আরো বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার মাঠে নেমে পড়েন। মুশফিক যে দীর্ঘদিন ধরে অনুশীলন করেছেন তার সুফল তিনি ঠিকই পেয়েছেন প্রেসিডেন্ট কাপে রান পাওয়ার মাধ্যমে।

এদিকে তামিম একাদশের বিপক্ষে শেষ মাচে ক্যাচ ধরতে গিয়ে কাঁধে ব্যথা পেয়েছিলেন মুশফিকুর রহিম। আর ব্যথা পাওয়ার পর তিনি আর মাঠে নামেননি। ফলে একটা শঙ্কা তৈরি হয়েছে যে, তিনি মাহমুদউল্লাহ একাদশের বিপক্ষে ফাইনাল ম্যাচটিতে খেলতে পারবেন না। তবে জানা গেছে, তিনি এখন কিছুটা সুস্থ আছেন। এখন দেখার বিষয় ফাইনালে তিনি মাঠে নামতে পারেন কিনা।

এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়
close