নেপালের বিপক্ষে প্রাথমিক দল ঘোষণা বাংলাদেশের

আগের সংবাদ

ফের সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার অবনতি

পরের সংবাদ

টটেনহ্যামের অভিশাপ বেল

প্রকাশিত: অক্টোবর ২০, ২০২০ , ১০:০২ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২০, ২০২০ , ১০:০২ অপরাহ্ণ

দুঃসময় যেন কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না গ্যারেথ বেলের। সম্প্রতি স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ তাকে দল থেকে বিদায় জানিয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় চলতি মৌসুমে ইংলিশ ক্লাব টটেনহ্যামে জায়গা হয় ৩১ বছর বয়সি এই ওয়েলশ ফুটবলারের। এদিন টটেনহ্যামের জার্সি গায়ে জড়িয়ে বদলি ফুটবলার হিসেবে ওয়েস্টহ্যামের বিপক্ষে ম্যাচের ৭২ মিনিটে মাঠে নেমেছিলেন এই ফরোয়ার্ড। কিন্তু তার মাঠে নামার পরপরই নাটকীয়ভাবে ৩ গোলে পিছিয়ে পড়া দল ওয়েস্টহ্যাম ম্যাচে ফিরে ড্র করতে সক্ষম হয়।

এদিন মাঠে নেমে ইংলিশ অধিনায়ক হ্যারি কেনের জোড়া গোলের সুবাদে ম্যাচের ১৬ মিনিটেই প্রতিপক্ষের জালে ৩ গোল দেয় টটেনহ্যাম। কে ভেবেছিল এমন ম্যাচে জয়ের স্বাদ পাবে না টটেনহ্যাম! কিন্তু ৩ গোলে এগিয়ে থেকেও ম্যাচে জয়ের দেখা পায়নি হ্যারি কেনের দল। এদিন ম্যাচে বেল নামার পর যেন সব এলোমেলো হয়ে যায়। জয়ের বন্দরে থাকা টটেনহ্যাম প্রথম গোল হজম করে ৮২ মিনিটে। এরপর ৮৫ মিনিটে আরেক গোল খেয়ে বসলেও এগিয়েই ছিল কেনের দল। ৩ গোলকে ৪ গোলে রুপ দেয়ার দারুণ সুযোগ ছিল টটেনহ্যামের জার্সি পরে দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নামা বেলের সামনে। কিন্তু তিনি তা পারেননি। উল্টো অতিরিক্ত সময়ে আরো এক গোল হজম করে পয়েন্ট ভাগাভাগি করতে হয়েছে তার দলকে।

এমন ম্যাচে জয় না পেয়ে টটেনহ্যাম ভক্তরা সরাসরি বেলকে দায়ী করছেন। তেমনি একজন ভক্ত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে লেখেন, অভিশপ্ত বেল আবার ফিরে এসেছে, যে কারণে ২৩ ম্যাচ পর আবার জয়ের দেখা পেতে যাচ্ছে প্রতিপক্ষ দল। আরেক ভক্ত লেখেন, মনে রাখবেন গত দুবছর ধরে বেল তার দলের জন্য অভিশাপের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল। বর্তমানে এ ফুটবলার টটেনহ্যামের জন্য অভিশাপস্বরূপ। উল্লেখ্য, এর আগেও ২০০৭-১৩ পর্যন্ত টটেনহ্যামে ছিলেন বেল। সে সময় তার দল টানা ২৪ ম্যাচে হারের স্বাদ পেয়েছিল। বেলকে অভিশপ্ত বলার পিছনে মূলত ২০১১ সালে ওলভসের বিপক্ষে ৩-২ গোলে এগিয়ে থেকে বেল মাঠে নামার পর ৩-৩ গোলে ম্যাচ ড্র হওয়ার ফলাফলকে সামনে এনেছেন ক্লাব ভক্তরা।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়