কিশোর গ্যাং পারভেজ গ্রুপের ৭ সদস্য গ্রেপ্তার

আগের সংবাদ

আ. লীগের প্রচার উপ-কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

পরের সংবাদ

হতবাক প্রীতি জিনতা এখনো কাঁপছেন

প্রকাশিত: অক্টোবর ১৯, ২০২০ , ৫:২৭ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১৯, ২০২০ , ৫:২৭ অপরাহ্ণ

বিশ্ব ক্রিকেট রবিবার ইতিহাসে প্রথমবারের মতো দেখেছে একই ম্যাচে দুই সুপার ওভার। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স বনাম কিংস ইলেভেন পঞ্জাব। উত্তেজনার পর উত্তেজনা, তারপর আবার উত্তেজনা! শেষমেষ ম্যাচ জিতেছে বলিউড অভিনেত্রী প্রীতি জিনতার দল পাঞ্জাব। এমন ম্যাচের পর হতবাক প্রীতি জিনতা নিজে। টুইটার পোস্টে জানিয়েছেন এখনো কাঁপছেন তিনি।

মুম্বাই বনাম পাঞ্জাবের ম্যাচটি প্রীতি জিনতা গ্যালারিতে বসে পুরোটাই দেখেছেন। নিজের দল ভালো খেললেই উৎপল্ল হয়েছেন, খারাপ করলেই মুখ ভার হয়েছে তার। তবে শেষটা যে এভাবেই হবে তা কী আর জানতেন! অজানা বলেই তো বিস্ময় প্রকাশ করেছেন, বলেছেন এখনো নাকি কাঁপছেন ৪৫ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী। পোস্টে তিনি লেখেন, কাজ শব্দের চেয়ে বেশি কথা বলে, সেই শব্দই আমায় সম্পূর্ণরূপে ব্যর্থ করেছে। দুইটা সুপার ওভার? বিস্ময় প্রকাশ করে এই তারকা বলেন, এখনো আমি কাঁপছি। কিংস ইলেভেনের ছেলেদের নিয়ে আমি গর্বিত। কী একটা খেলা, আর একটা রাত, কেমন একটা অনুভুতি! এমন দলগত প্রচেষ্টার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ।

এর আগে মূল ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করতে নামে রোহিত শর্মার মুম্বাই। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে তারা করতে সক্ষম হয় ১৭৬ রান। জবাবে লোকেশ রাহুলের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে জয়ের পথেই ছিল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। ৫১ বলে ৭ চার আর ৩ ছক্কায় ৭৭ রান করা রাহুল ইনিংসের আড়াই ওভার বাকি থাকতে জাসপ্রিত বুমরাহর শিকার হন। এছাড়া ক্রিস গেইল ২১ বলে ১ চার আর ২ ছক্কায় ২৪ এবং নিকোলাস পুরান ১২ বলে ২টি করে চার ছক্কায় ২৪ রান করেন। শেষ পর্যন্ত তা টাই হয়, ম্যাচ গড়ায় সুপার ওভারে।

ম্যাচের পর প্রীতি জিনতা টুইটার পোস্টে জানিয়েছেন এখনো কাঁপছেন তিনি

সুপার ওভারে জাসপ্রিত বুমরাহর বলে মাত্র ৫ রান তুলে পাঞ্জাব। বুমরাহ তুলে নেন পাঞ্জাবের দুটি উইকেট। জবাবে সেই ৫ রানেই থামে মুম্বাইয়ের সুপার ওভার ইনিংস। জবাবে মোহাম্মদ শামির দুর্দান্ত বলে মুম্বাইকে জয় এনে দিতে পারেননি রোহিত শর্মা ও ডি কক। ফলে আরেকটি সুপার ওভারের ম্যাচ হয়, যা আইসিসির নিয়মে নতুন। এর আগে সুপার ওভারেও ম্যাচ টাই হলে মূল ম্যাচের বাউন্ডারির রান বিবেচনায় জয়ী দল নির্ধারণ করা হতো।

দ্বিতীয় সুপার ওভারে এবার মুম্বাইয়ের হয়ে ব্যাটিং করতে নামেন দুই হার্ডহিটার কাইরন পোলার্ড ও হার্দিক পান্ডিয়া। ক্রিস জর্ডানের করা ওই ওভারে পোলার্ড একটি বাউন্ডারিসহ ৭ রান নিলে ১১ রান তুলতে পারে মুম্বাই। ফলে ১২ রানের লক্ষ্য নিয়ে ব্যাট করতে আসেন পাঞ্জাবের ক্রিস গেইল ও মায়াঙ্ক আগারওয়াল। ট্রেন্ট বোল্টে প্রথম বলেই ছক্কা হাঁকান ইউনির্ভার্স বস। পরের বলে নেন এক রান। তৃতীয় বলে স্ট্রাইক পান আগারওয়াল। আর সেখানে দাঁড়িয়ে টানা দুই বাউন্ডারিতে ম্যাচের সব উত্তেজনা পানি করে দেন ভারতীয় এই ব্যাটসম্যান।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়