বসলো ৩৩ তম স্প্যানটি, দৃশ্যমান ৫ কিমি

আগের সংবাদ

কন্যা হত্যার বিচার দাবিতে পিতার অবস্থান ধর্মঘট

পরের সংবাদ

বিচার চেয়ে প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন গৃহবধু রশিদা

প্রকাশিত: অক্টোবর ১৯, ২০২০ , ২:২৮ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১৯, ২০২০ , ৫:০২ অপরাহ্ণ

শ্বশুর বাড়ির জমি রক্ষায় বিচার চেয়ে প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন গৃহবধু রশিদা খাতুন (৫৬)। স্বামী পল্লী চিকিৎসক গোলম রহমানের মৃত্যুর পর প্রভাবশালী ব্যক্তিরা প্রায় ৪ একর জায়গা জোরপূর্বক দখলের জন্য পায়তাঁরা চালিয়ে যাচ্ছে। তাঁর বাড়ি চট্টগ্রামের বাশঁখালী উপজেলার ছনুয়া ইউনিয়নের ছোট ছনুয়া গ্রামে।

এ ঘটনায় রশিদা খাতুন বাঁশখালী থানায় ১৬ আগস্ট রাশেদুল করিম সুমনকে প্রধান আসামি করে ৭ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো আছে উল্লেখ করে মামলা করেন। এই মামলার আসামিরা জামিনে এসে রশিদা খাতুনের উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে।

এই ব্যাপারে সোমবার (১৯ আক্টোবর) বাঁশখালী আদালত সড়কে আগের ঘটনার বর্ণনা দিয়ে রশিদা খাতুন জানান, স্বামীর মৃত্যুর পর ৪ একর জায়গার ওপর নজর পড়ে প্রতিবেশী লোকজনের। পাশ্ববর্তী রাশেদুল করিম সুমন, মো. আব্বাস, মো. আকতার, আব্দুল করিম, কামাল উদ্দীন, মিজানুর রহমান মামুন লোকজন নিয়ে হামলা করে এবং জমি দখলের চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়। এরপর থেকেই প্রভাবশালীরা সালিশ বিচারের নাম বলে চাষাবাদে বাধা প্রদান করছেন। প্রতিপক্ষ প্রভাবশালী ব্যক্তির বিরুদ্ধে থানা ও আদালতে মামলা করেও রেহাই পাচ্ছি না। সাধারণ ডায়েরিও করেছি। এখন ঘর থেকেও বের হতে দিচ্ছে না। পথের মধ্যে লোকজন দিয়ে হামলারও চেষ্টা চালাচ্ছে।

ছনুয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ বলেন, ছোট ছনুয়া গ্রামের ডাক্তার গোলাম রহমানের স্ত্রী রশিদা খাতুনের সঙ্গে রাশেদুল করিমের জমি নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ রয়েছে। কয়েক দফা সালিশী বৈঠকও হয়। থানায় ও আদালতে মামলাও হয়েছে। তাদের উভয় পক্ষকে ইউনিয়ন পরিষদে ডেকে সালিশী বৈঠকের মাধ্যমে জমি সংক্রান্ত বিরোধ মীমাংসার জন্য নোটিস পাঠানো হবে।

বাঁশখালী থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম মজুমদার বলেন, ছোট ছনুয়ায় রশিদা খাতুনের জমির বিরোধ নিয়ে থানায় ও আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য উভয় পক্ষকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়