সুপার ওভারে জিতল কলকাতা

আগের সংবাদ

শ্রমিক লীগের ৩৫ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা

পরের সংবাদ

ভ্যান চালককে মেরে ফেলার হুমকি দিলেন কর্মকর্তা

প্রকাশিত: অক্টোবর ১৮, ২০২০ , ১০:৩৬ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১৮, ২০২০ , ১১:০৬ অপরাহ্ণ

ক্যাম্পাসে ভ্যান চালানোর অপরাধে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তার হাতে নির্যাতনের শিকার হয়েছে ভ্যানচালক। শুক্রবার ( ১৬ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৬টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের চৌরঙ্গী মোড় থেকে কন্ট্রোল রুমে এনে প্রায় চার ঘণ্টা ধরে মারধর করা হয়। এ ঘটনা জানাজানি হলে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়া হয়।

ভুক্তভোগী নাহিদ হক জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গেইট থেকে এক অসুস্থ যাত্রীর অনুরোধে তাদেরকে ভ্যানে করে কোয়ার্টারে পৌছে দিয়ে ফেরার পথে সুদীপ্ত শাহিন তাকে আটক করে। এরপর কন্ট্রোল রুমে ধরে নিয়ে গিয়ে লাঠি দিয়ে বেধড়ক পেটাতে থাকে। গায়ে মুখে কিল ঘুষি দিতে থাকে। প্রায় চার ঘণ্টা তাকে ওই রুমে আটকে রাখে। একপর্যায়ে, মারধরের ঘটনা বাইরে কাউকে বলা যাবে না এই শর্তে তাকে মুক্তি দেয়। নতুবা তাকে মেরে ফেলার হুমকিও দেয়।

এই ঘটনায় ক্যাম্পাস জুড়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন প্রতিবাদমূলক পোষ্টে প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তার অপসারণ দাবি করছেন অনেকে।

ইমরান হোসাইন নামে একজন লিখেছেন, একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা কতটা ভয়ংকর হতে পারে সুদীপ্ত শাহীন তার জলন্ত উদাহরণ। ইতোপূর্বে সে বিভিন্ন ন্যাক্কারজনক ঘটনা সৃষ্টিকারী হিসেবে বহুল আলোচিত ও পরিচিত।

ভোরের কাগজের সঙ্গে আলাপকালে নাহিদ জানান, আগামী কর্মদিবসে তিনি নির্যাতনের বিচার চেয়ে লিখিত অভিযোগ জমা দেবেন।

এ বিষয়ে সুদীপ্ত শাহিনকে একাধিকবার ফোন দেয়া হলে পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনায় রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ বলেন, সুদীপ্ত শাহীনের নামে একাধিক অভিযোগ ইতোমধ্যে আমাদের কাছে এসেছে। উপ-উপাচার্য অধ্যাপক নুরুল আলমকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির রিপোর্ট জমা দিলে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবো। আর নাহিদের মারধরের বিষয়টি আমরা শুনেছি। অভিযোগের সত্যতা পেলে প্রযোজনীয় ব্যবস্থা নিবো।

প্রসঙ্গত এর আগে বিভিন্ন সময়ে সুদীপ্ত শাহীনের হাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র, কর্মকর্তা-কর্মচারী , নারী সংবাদকর্মী,বহিরাগত ও ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে রিক্সাচালক, দোকানদার মারধর ও নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। যার তদন্ত এখনও চলছে।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়