২ কোটি টাকার স্ট্যাম্পসামগ্রী জব্দ, গ্রেপ্তার ১

আগের সংবাদ

ভুয়া চিকিৎসককে জরিমানা, মুচলেকা দিয়ে রেহাই

পরের সংবাদ

পার্কের নামে রেলওয়ের জমি দখল ও টাকা আত্মসাৎ

প্রকাশিত: অক্টোবর ১৫, ২০২০ , ১:৪১ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১৫, ২০২০ , ১:৪৮ অপরাহ্ণ

নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার নলডাঙ্গার হাট রেলওয়ে স্টেশন পার্কের নামে ব‍্যাপক অনিয়ম ও লক্ষ লক্ষ টাকার দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় মামুন ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চল রাজশাহীর জেনারেল ম‍্যানেজারের নিকট লিখিত অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

অভিযোগ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নলডাঙ্গা উপজেলার খোলাবাড়িয়া গ্রামের আব্দুল গফুরের ছেলে মামুনুর রশিদ মামুন ও তার কয়েকজন সহযোগী এবং প্রশাসনের ২/১ জন অসৎ কর্মকর্তার যোগসাজসে নলডাঙ্গার হাট রেল স্টেশন সংলগ্ন দক্ষিণ প্রান্তে রেলওয়ের বিশাল জায়গা জুড়ে পার্কটি প্রতিষ্ঠিত। সেখানে একটি পার্ক নির্মাণ করে পার্কের কাজ করার কথা বলে সরকারি ও বেসরকারিভাবে বিভিন্ন ব‍্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠানের নিকট থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা সংগ্রহ করে দুর্নীতির মাধ্যমে আত্মসাৎ করেছে। এছাড়াও পার্ককে পুজি করে একটি বিশাল পাকা ভবন নির্মাণ করে সেখানে কনফেকশনারী ও কফি হাউসের ব‍্যবসা পরিচালনা করছে।

এ বিষয়ে রাজশাহী রেলওয়ের জি এম বলেন, রেলওয়ের জায়গায় অনুমতি ছাড়া স্টেশনের সাথে পার্ক বা ভবন নির্মাণ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। আমি রেলওয়ের অফিসারকে ব‍্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ দিয়েছি।

এবিষয়ে রেলওয়ের পাকশী অফিসের ডিইও জানান, পার্কের নাম ভাঙ্গিয়ে কে বা কারা ব‍্যবসা ও দুর্ণীতির মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে সেই বিষয়টি ভিন্ন কথা, তবে রেলওয়ের জায়গাতে অনুমতিনা নিয়ে গড়ে উঠা পার্কের বিরুদ্ধে অফিসিয়ালি ব‍্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ ঘটনায় নলডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান মুকু ও নলডাঙ্গা পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র সাহেব আলীসহ অনেকেই জানান, পার্কে স্থানীয়ভাবে কোনো কমিটি না থাকায় মামুন এককভাবে পরিচালনা করায় অনিয়ম ও দুর্ণীতির বিষয় থাকাটা স্বাভাবিক। মামুন নলডাঙ্গায় খালি হাতে এসে প্রশাসন ও দুই একজন ব‍্যক্তির সাথে সম্পর্ক গড়ে তুলে বতর্মানে লাখপতি বনে যাওয়ায় এবং আয়েশি জীবন – যাপন করায় তার মধ্যে দুর্নীতি ও অনিয়ম পরিলক্ষিত হয়।

তবে তারা প্রত‍্যাশা করেন, স্থানীয়ভাবে গণ্যমান্য ব‍্যক্তিদের নিয়ে কমিটি করে আয়-ব‍্যয়ের হিসাব দিলে বিষয়টি নিয়ে স্বচ্ছতা ফিরে আসবে। হিসাবের জবাবদিহীতা থাকলে অনিয়ম ও দুর্নীতি দূর হবে।

এমআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়