বাবার ইচ্ছা পূরণ করলেন ইগা

আগের সংবাদ

চার শিশুর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা স্থগিত

পরের সংবাদ

কাজ দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে গৃহপরিচারিকাকে ধর্ষণ

প্রকাশিত: অক্টোবর ১১, ২০২০ , ৭:২২ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১১, ২০২০ , ৭:৫৬ অপরাহ্ণ

রাজধানীর শ্যামলী থেকে মো. সেলিম (৩৪) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। র‌্যাব বলছে, ভাল বেতনে কাজ পাইয়ে দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে এক গৃহপরিচারিকাকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণের অভিযোগে ওই ব্যক্তিকে আটক করে তাদের কাছে সোপর্দ করে স্থানীয় বাসিন্দারা। সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি মো. আবদুল্লাহ আল মামুন রবিবার (১১ অক্টোবর) বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেন।

র‌্যাবের এ কর্মকর্তা বলেন, প্রায় দুমাস আগে ভিকটিম একটি বাসা বাড়িতে কাজে যাওয়ার সময় আটক মো. সেলিমের সঙ্গে তার কথা হয়। আলাপচারিতার একসময় তিনি ভিকটিমকে ভাল বেতনে কয়েকটি বাসায় কাজের ব্যবস্থা করে দেবেন বলে জানায়। পরিচিত হওয়ার দুদিনের মধ্যেই ওই ব্যক্তি ভিকটিমের বাসায় গিয়ে বলেন কাজের ব্যবস্থা হয়েছে, তার সঙ্গে এখনি যেতে হবে। ভিকটিম আটক সেলিমের মিষ্টি কথার ফুসলানি ও ভাল বেতনের কথা চিন্তা করে তার সঙ্গে যেতে রাজি হয়।

সে সময় তাকে শের-ই-বাংলানগর থানাধীন শ্যামলী বাসস্ট্যান্ডের কাছাকাছি ফল পট্টি নামে পরিচিত গলিতে অবস্থিত রাজ ইন্টারন্যালনাল আবাসিক হোটেলের ৬ষ্ঠ তলার একটি রুমে নিয়ে যাওয়া হয়। তখন সেখানে ভয়-ভীতি দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করাসহ নিজের মোবাইলে ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ধারণ করেন সেলিম।

তিনি আরো বলেন, এতেই খান্ত না হয়ে ভিকটিমকে আবার হোটেলে আসতে বলাসহ তার কাছ থেকে টাকাও দাবি করা হয়। আর টাকা না দিলে ধারণকৃত ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়া হবে বলেও ভয় দেখানো হয়। এমন পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার রাতেও ভিকটিমের বাসার সামনের রাস্তায় গিয়ে বিভিন্নভাবে হুমকি দিতে থাকে সেলিম।

বিষয়টি দেখে এলাকাবাসী কি হয়েছে জানতে চাইলে ভিকটিম তা জানিয়ে দেয়। তখন এলাকাবাসী সেলিমকে আটক করে র‌্যাবের কাছে সোপর্দ করে। এ ঘটনায় শের-ই-বাংলানগর থানায় মামলা করা হয়েছে।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়