বলিভিয়াকে উড়িয়ে ব্রাজিলের উড়ন্ত সূচনা

আগের সংবাদ

মজা করে আমাদের অনেকে রাজ্জাক-কবরী ডাকেন

পরের সংবাদ

প্রতিবছর আক্রান্ত ১২ হাজার, মৃত্যু ৭ হাজার

প্রকাশিত: অক্টোবর ১০, ২০২০ , ১০:৫৭ পূর্বাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১০, ২০২০ , ৮:৫৯ অপরাহ্ণ

স্তন ক্যান্সার সচেতনতা দিবস আজ

আজ ১০ অক্টোবর শনিবার দেশে ৮ম বারের মত পালিত হচ্ছে স্তন ক্যান্সার সচেতনতা দিবস। স্তন ক্যান্সার সম্পর্কে সাধারন মানুষের মাঝে সচেতনতা বাড়াতে ২০১৩ সাল থেকে বেসরকারিভাবে এই দিবস উদযাপিত হয়ে আসছে। এবছর দিবসটির প্রতিপাদ্য ‘স্থূলতা স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়’।

আন্তর্জাতিক সংস্থার অনুমিত হিসাব অনুযায়ী বাংলাদেশে প্রতি বছর প্রায় ১২ হাজার ৫শ নারী নতুন করে স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। মারা যান প্রায় ৭ হাজার জন।

৮টি সংগঠনের মোর্চা বাংলাদেশ স্তন ক্যান্সার সচেতনতা ফোরাম ও আন্তর্জাতিক রোটারি জেলা ৩২৮১, বাংলাদেশ যৌথভাবে দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে মাসজুড়ে নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। আজ সকাল ১১টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত মানিক মিয়া এভিনিউয়ের পশ্চিম প্রান্তে অবস্থান ও সাধারন মানুষকে সচেতন করা। সাথে সহজ বাংলায় লেখা তথ্যসমৃদ্ধ লিফলেট ও পুনঃব্যবহারযোগ্য গোলাপি রংয়ের মাস্ক বিতরণ। সন্ধ্যা ৭ টায় রোটারির উদ্যোগে ভার্চুয়াল সেমিনার, সকাল ৯ টায় জাতীয় ক্যান্সার ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের বহির্বিভাগে আসা রোগী ও স্বজনদের লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ।

বাংলাদেশ স্তন ক্যান্সার সচেতনতা ফোরামের প্রধান সমন্বয়কারী ও রোটারির স্তন ক্যান্সার সচেতনতা কমিটির চেয়ারম্যান ডা. হাবিবুল্লাহ তালুকদার রাসকিন জানান, দেশে ক্যান্সার চিকিৎসার সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ও সেবার সন্নিবেশ ঘটছে। কিন্তু বড় বড় শহর ও হাসপাতালকেন্দ্রীক ব্যবস্থা প্রান্তিক পর্যায়ের নারীদের ক্যান্সার নির্ণয় ও চিকিৎসা সুবিধা দিতে পারছে না।

সারা বিশ্বে যখন ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণে প্রাথমিক প্রতিরোধ, সূচনায় নির্ণয় ও স্ক্রিনিং, উপযুক্ত চিকিৎসা ও প্রশমন সেবা- এই চারটি উপাদানের উপর জোর দেয়া হচ্ছে, সেখানে আমাদের দেশে ক্যান্সার থেকে সুরক্ষা, প্রাথমিক অবস্থায় নির্ণয় ও স্ক্রিনিং প্রাপ্য গুরুত্ব পাচ্ছে না। সরকারিভাবে স্তন ও জরায়ুমুখের ক্যান্সারের স্ক্রিনিং প্রোগ্রাম থাকলেও তা সমাজভিত্তিক ও সংগঠিত না হওয়ায় প্রভাব ফেলতে পারছে না। প্রতিরোধের জন্য সরকার অর্থ বরাদ্দ দিলেও এ সম্পর্কিত কার্যক্রম দৃশ্যমান নয়।

এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়