সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে আটক ৪

আগের সংবাদ

একাদশ শ্রেণির উদ্বোধনী ক্লাসে শিক্ষার্থীদের অশালীন মন্তব্য

পরের সংবাদ

এমসি কলেজে ধর্ষণ

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলেন তারেক-মাসুম

প্রকাশিত: অক্টোবর ৪, ২০২০ , ১০:১১ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ৪, ২০২০ , ১০:১৪ অপরাহ্ণ

সিলেটের এমসি ছাত্রাবাসে গৃহবধূকে গণধর্ষণের মামলার এজাহারভুক্ত আরোও দুই আসামি তারেক ও মাসুম ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। রবিবার (৪ অক্টোবর) সিলেটের অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম জিয়াদুর রহমানের আদালতে তারেক ও মুখ্য মহানগর হাকিম (দ্বিতীয়) আদালতের বিচারক মো. সাইফুর রহমানের আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন মাসুম।

এ নিয়ে আলোচিত গণধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার আটজনের সবাই আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলেন। এর আগে, শুক্র ও শনিবার রাতে দুই দফায় তিনজন করে ছয়জন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, মামলার ২ নম্বর আসামি তারেকুল ইসলাম তারেক জবানবন্দিতে আদালতকে জানান, এমসি কলেজ গেট থেকে গৃহবধূর সঙ্গে থাকা লোকদের সরিয়ে প্রাইভেটকার চালিয়ে ছাত্রাবাসে নিয়ে যান। এরপর পর্যায়ক্রমে সাইফুর রহমান, অর্জুন লস্কর ও তারেক গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন।

মামলার অপর আসামি এমসি কলেজ ছাত্র মাহফুজুর রহমান মাসুম আদালতকে জানান, ঘটনার খবর পেয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছান তিনি। তিনি ওই নারীকে ধর্ষণ করেননি। ছাত্রাবাসে তার নামে একটি কক্ষ বরাদ্দ থাকলেও এটি ব্যবহার করতেন ধর্ষণ ও অস্ত্র মামলার প্রধান আসামি ছাত্রলীগ কর্মী সাইফুর।

রবিবার দুই আসামি দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন সিলেট মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) অমূল্য কুমার চৌধুরী। তিনি বলেন, তারা দুজন ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত থাকার দায় স্বীকার করেছেন। জবানবন্দি গ্রহণ শেষে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়। এ নিয়ে মামলায় গ্রেপ্তার আট আসামি ধর্ষণের দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন।

পাঁচদিনের রিমান্ড শেষে রবিবার বিকেল পৌনে ৩টার দিকে মামলার ২ নম্বর আসামি তারেকুল ইসলাম তারেক (২৮), ৬ নম্বর আসামি মাহফুজুর রহমান মাসুমকে অতিরিক্ত মহানগর হাকিম জিয়াদুর রহমানের আদালতে হাজির করা হয়। এরপর তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়