পুঠিয়ায় বন্যায় এক ইউনিয়নের ১০ গ্রাম প্লাবিত

আগের সংবাদ

এমসি কলেজ ও ধর্ষণের চিত্র তুলে ধরল তদন্ত কমিটি

পরের সংবাদ

আক্রমণে আহত ৪

দুই মেছোবাঘের একটিকে পিটিয়ে হত্যা

প্রকাশিত: অক্টোবর ২, ২০২০ , ৫:১০ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২, ২০২০ , ৫:৩৫ অপরাহ্ণ

পাবনার চাটমোহরে মেছো বাঘের কামড়ে আহত হয়েছে ৪ জন। এ সময় গ্রামবাসীর হাতে ধরা পড়েছে মেছোবাঘ দুটি। তার মধ্যে পিটুনিতে মারা গেছে একটি। আরেকটিকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করে বন বিভাগ। আহতদের হাসপাতালে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

শুক্রবার (২ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে উপজেলার ডিবিগ্রাম ইউনিয়নের বামনগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মেছো বাঘ ধরার খবর পেয়ে, তা দেখতে ভীড় জমে উৎসুক মানুষের। এ সময় পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও বন বিভাগের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

স্থানীয় বাসিন্দা ইমদাদুল হকসহ কয়েকজন জানান, এক সপ্তাহ ধরে বামনগ্রাম গোরস্তান এলাকায় দু’টি মেছোবাঘের দেখা মেলে। ইতোমধ্যে বেশকিছু মুরগী ও একটি ছাগল ধরে খেয়েছে মেছোবাঘ। এরপর থেকে বাঘ আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে গ্রামের মানুষের মাঝে। শুক্রবার সকালে মেছোবাঘ দেখা গেলে গ্রামবাসী একজোট হয়ে বামনগ্রাম গোরস্তান ঘিরে ফেলে। তারপর বিভিন্ন কৌশলে মেছোবাঘ দু’টিকে আটক করতে সক্ষম হয় এলাকাবাসী। এ সময় মেছোবাঘের আক্রমণে চারজন আহত হয়। পরে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসীর পিটুনিতে একটি মেছো বাঘ মারা যায়। মৃত ও জীবিত মেছোবাঘটিকে উদ্ধার করে ডিবিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের সামনে নিয়ে গেলে একনজর দেখতে ভীড় জমে উৎসুক জনতার।

ডিবিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নবীর উদ্দিন মোল্লা জানান, সকালে গ্রামবাসী মেছোবাঘ দেখে একজোট হয় ধরার জন্য। বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গে মেছোবাঘ না মেরে উদ্ধার করে পরিষদে নিয়ে আসতে বলি। একটি মেছোবাঘ আনার সময় মারা যায়।

আহতরা হলেন, বামনগ্রামের ইছা বিশ্বাসের ছেলে লিটন বিশ্বাস (৩৫), মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে এনামুল হক (২৩), ইসমাইল হোসেনের ছেলে মহিদুল ইসলাম (২৮) ও আফসার আলীর ছেলে আনিছ (৩০)। তাদের হাসপাতালে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

চাটমোহর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈকত ইসলাম জানান, সমাজসেবা অফিসে যোগাযোগ করে তাদের মাধ্যমে আহতদের ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে। আর মেছোবাঘকে পিটিয়ে মারা হলে আইনগত প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হবে। এ নিয়ে বন বিভাগের সঙ্গে কথা বলে দেখতে হবে।

পাবনার বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান জানান, পাবনার বন্য প্রাণী বিষয়ক সংগঠন নেচার এ্যান্ড ওয়াইল্ড লাইফ কনসারভেশন কমিউনিটির মাধ্যমে খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে একটি জীবিত মেছোবাঘ উদ্ধার করেছি। অন্যটি মারা গেছে। উদ্ধার মেছোবাঘ কিছুটা আহত। তাকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেয়ার পর সুন্দর পরিবেশ দেখে অবমুক্ত করা হবে।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়