বিশ্বব্যাপী সাইবার হামলায় রাশিয়া জড়িত!

আগের সংবাদ

সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে কোন পথে আমরা?

পরের সংবাদ

শিক্ষা কার্যক্রম স্বাভাবিক হবে কখন

জুবায়ের আহমেদ

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ , ১০:০৪ অপরাহ্ণ

করোনা নিয়ে আতঙ্ক কমে গেলেও আন-অফিসিয়াল আক্রান্তের সংখ্যা এখন আগের চেয়েও অনেক বেশি। সাম্প্রতিক সময়ে প্রতিটি ঘরে ঘরেই মানুষ সর্দি-জ্বর-কাশিতে আক্রান্ত হচ্ছে। এই অবস্থায় সতর্কতার বিকল্প না থাকলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার জন্য আন্দোলন করছে বহু ছাত্র সংগঠনও। পাশাপাশি নাগরিক সমাজের অনেকেই চাচ্ছেন যেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলে দেয়া হয়। কওমি মাদ্রাসা, হিফজখানা সরকার খুলে দিলেও স্কুল, কলেজ, ইউনিভার্সিটিসহ কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীন সব প্রতিষ্ঠানই বন্ধ আছে। তবে বহু মিডিয়ায় খবর প্রকাশ হচ্ছে যে, শিগগিরই খুলে দেয়া হচ্ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, যা মূলত পরবর্তী সময়ে গুজব হয়েই থেকেছে।

সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন আসন্ন শীতে করোনার প্রকোপ বাড়তে পারে, সবাই যেন প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করেন এবং তিনি মসজিদে নামাজের সময় মাস্ক পরাসহ প্রয়োজনীয় সাবধানতা অবলম্বের জন্য মুসল্লিদের আহ্বান জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী যেহেতু বলেছেন, আসন্ন শীত মৌসুমে করোনার প্রকোপ বাড়তে পারে, সেহেতু অবশ্যই শীতে করোনার প্রকোপ বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে, কেননা তিনি নিজ থেকে এ কথা বলেননি, অবশ্যই বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ ও সতর্কতা জেনেই এমন মন্তব্য করেছেন।

করোনা সংকটের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় স্বাভাবিকভাবেই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে শিক্ষার্থীরা ও পুরো শিক্ষা খাত। এইচএসসি পরীক্ষার্থী বেশ সমস্যায় পড়েছেন। প্রাথমিক থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত সর্বত্রই বেশ সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। মানুষের মাঝে আতঙ্ক নেই, সবকিছু স্বাভাবিক চলছে, ছাত্রদের ক্ষতি হচ্ছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিলে ক্ষতি কি। অনেকে এই যুক্তি দেখালেও বাস্তব পরিস্থিতি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার অনুক‚লে নয়। তাছাড়া চলতি শিক্ষাবর্ষ শেষের দিকে। পরিস্থিতির দাবি মেনে নিয়ে অটো প্রমোশন দেয়াই হবে সময়োচিত সিদ্ধান্ত। এছাড়াও বিশেষ করে শিক্ষাঙ্গনে কোমলমতি শিশু থেকে শুরু করে উচ্চ শিক্ষায় নিয়োজিত ছাত্রছাত্রীরা দেশের সম্পদ, ভবিষ্যৎ। বর্তমান প্রতিকূল পরিস্থিতিতে তাদের জীবনকে হুমকি ফেলে দেয়া ঠিক হবে না। সংশ্লিষ্টদের বুঝতে হবে, করোনায় মৃত্যুর হার কমেনি, আক্রান্তের সংখ্যা আগের চেয়েও বেড়েছে, হয়তো অফিসিয়াল ঘোষণা নেই। মানুষের মাঝে আতঙ্ক কমেছে, কিন্তু করোনার প্রকোপ কমেনি। করোনা সংকট পুরোপুরি কিংবা আশানুরূপভাবেও সমাধান না হওয়ার আগে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিয়ে ঝুঁকি নেয়া সঠিক সিদ্ধান্ত হতে পারে না। কেননা মানুষের জীবনের চেয়ে শিক্ষা বড় নয়। তাই আসন্ন শীত মৌসুম শেষে পরবর্তী শিক্ষাবর্ষ থেকে পুনরায় শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করার সিদ্ধান্ত নেয়া প্রয়োজন বলে মনে করছি।

শিক্ষার্থী, বিজেম, ঢাকা।

[email protected]

এসআর