তামিম-মুশফিকরা জৈব সুরক্ষা বলয়ে ফের অনুশীলন

আগের সংবাদ

ভুলে যাই বিষণ্ণতা

পরের সংবাদ

মেসি যা করেন বার্সার ভালোর জন্য করেন

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ , ৯:০৯ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ , ৯:১৩ অপরাহ্ণ

গত মৌসুমের শেষে মেসির বার্সা ছাড়ার ঘোষণার পর গরম হয়ে যায় ফুটবল অঙ্গন। মেসি যে শুধু বার্সা ছাড়ার ঘোষণা দিয়েই চুপ ছিলেন তা নয়। তিনি খোলাখুলিভাবে ক্লাবের সমালোচনা করেন। এরপর তিনি যখন তার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেন তখনো তিনি বার্সার সমালোচনা করেছিলেন। এরপর লুইস সুয়ারেজের বিষয়টি নিয়েও মেসি সরব ছিলেন। তবে নিজের প্রিয় ক্লাবের এত সমালোচনা করেন ক্লাবের ভালোর জন্যই। খেলাধুলাবিষয়ক সংবাদমাধ্যম স্পোটর্সের সঙ্গে এক আলাপচারিতায় এমনটিই জানিয়েছেন মেসি।

এ ব্যাপারে তিনি বলেন, অনেক কিছু নিয়ে তাদের সঙ্গে আমার বনিবনা হয়নি। তবে এটির এখন ইতি টানতে হবে। আমাদের সবাইকে এক হতে হবে। আর ধরে নিতে হবে এখনো সেরা সময়টা আসেনি। আমার সব ভুলের জন্য আমি দায় নেই। যদিও ভুল করে থাকি তা বার্সাকে ভালোর জন্য। বার্সাকে শক্তিশালী করার জন্য। যারা আমাদের খোঁজ-খবর রাখেন তাদের সবাইকে আমি একটি বার্তা দিতে চাই। যদি কোনো মুহূর্তে, কোনো সময়ে আমার কথা বা কাজ দ্বারা কেউ বিব্রত হয়ে থাকে এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই যে আমি যা করেছি তা বার্সার ভালোর চিন্তা মাথায় রেখেই করেছি।

২০০৪ সাল থেকে বার্সার মূল দলের হয়ে খেলছেন মেসি। মূল দলে খেলার আগে স্পেনের সবচেয়ে বড় ক্লাবটির বয়সভিত্তিক দলে খেলেছেন তিনি। ফলে বার্সার সঙ্গে মেসির সম্পর্ক প্রায় ২০ বছরের। কিন্তু গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে ৮-২ গোলে হারার পর মেসি ঘোষণা দেন তিনি আর তার প্রিয় ক্লাবের হয়ে খেলতে চান না। তিনি একটি ফ্যাক্সের মাধ্যমে তা বার্সাকে জানিয়ে দেন। কিন্তু তাকে আটকানোর জন্য উঠে পড়ে লাগেন বার্সেলোনা ক্লাবের সভাপতি জোসেফ মারিয়া বার্তেমিউ। শেষ পর্যন্ত রিলিজ ক্লজের মাধ্যমে তাকে আটকাতে সমর্থ হন বার্তেমিউ।

মেসি যে শুধুমাত্র বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে হারার কারণে বার্সা ছাড়তে চেয়েছিলেন ব্যাপারটি এমন নয়। তিনি ২০১৯-২০ মৌসুমের আগে থেকেই বেশ কয়েকটি বিষয় নিয়ে ক্লাবের উপর ক্ষিপ্ত ছিলেন। এর মধ্যে অন্যতম ছিল নেইমারের পুনরায় বার্সায় যোগ দেয়ার বিষয়টি। মেসি খুব করে চেয়েছিলেন নেইমার আবার বার্সায় ফিরে আসুক। কিন্তু তাকে আনতে ব্যর্থ হয় বার্সা। আর মেসি তখন দাবি করেছিলেন যে নেইমারকে ফিরিয়ে আনার ব্যাপারটিতে বার্সার কর্তাদের আন্তরিকতার অভাব ছিল। এরপর বার্সা সভাপতি জোসেফ মারিয়া বার্তেমিউর লোক ভাড়া করার ব্যাপারটিও ছিল। মেসি দাবি করেন, বার্তেমিউ মেসিসহ কয়েকজনের নামে কুৎসা রটানোর জন্য লোক ভাড়া করেছিলেন।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়