ইউএনও বাসায় ফিরছেন বৃহস্পতিবার

আগের সংবাদ

তামিম-মুশফিকরা জৈব সুরক্ষা বলয়ে ফের অনুশীলন

পরের সংবাদ

বৃহত্তর স্বার্থে আমরা ব্যবসায়ীদের পক্ষে আছি

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ , ৮:৫৮ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ , ৯:০০ অপরাহ্ণ

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, আমরা এখন বৃহত্তর স্বার্থে ব্যবসায়ীদের পক্ষে আছি। আমি মনে করি ব্যবসায়ীরা যদি ভালো থাকে ব্যাংকগুলোও ভালো থাকবে। তিনি বলেন, গত বছর প্রত্যেকটি ব্যাংকই ভালো করেছে, তাদেরকে ধন্যবাদ। প্রত্যেকের ব্যালেন্স সিট অনেক ভালো। খেলাপি ঋণের পরিমাণও কমের দিকে। আমি মনে করি যে, এটাই সময় তাদের ক্লায়েন্টদের সাহায্য করার জন্য। ক্লায়েন্ট কোনোভাবে উপকৃত হলে দিনের শেষে লাভবান হবে ব্যাংকগুলো।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি এবং সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভা শেষে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলেনে তিনি একথা বলেন। ঋণ খেলাপিদের আরেক দফা সুবিধা দেওয়ার সমালোচনা প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‌‌কারও ঋণ তো মাফ করা হয়নি, কিস্তি পরিশোধের সময় বাড়ানো হয়েছে মাত্র। এটা করোনার জন্যই বাড়ানো হয়েছে। টাকা তো মাফ করে দিইনি। টাকা আমরা পাব। কিন্তু সময় বাড়িয়ে দিয়েছি।’

করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত ঋণ শ্রেণিকরণে স্থগিতাদেশ দিয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। মহামারীর প্রকোপ দীর্ঘায়িত হওয়ায় তা আরও তিন মাস বাড়ানো হয়েছে। ঋণ খেলাপিদের তৃতীয় দফা সময় দেওয়ার সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করছেন অনেকে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, সময় না বাড়িয়ে এ সময় যদি আমরা বাধা সৃষ্টি করি, তাহলে এক্সপোর্ট অর্ডারগুলো বাস্তবায়ন করা যাবে না। আমরা আমদানি করছি এখনও এলসিগুলোর নিষ্পত্তি করতে পারব না। যেই মুহূর্তে লোনটি ক্লাসিফাইড হয়ে যাবে, সেই মুহূর্তে তাদের স্বাভাবিক কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত হবে। এই মুহূর্তে আমরা মনে হয় এটা করা ঠিক হবে না।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়