মুক্তি পাচ্ছে অক্ষয়ের লক্ষ্মী বোম্ব

আগের সংবাদ

স্থলপথ খুলে দিতে ভারতকে বাংলাদেশের অনুরোধ

পরের সংবাদ

এলজিআরডি মন্ত্রী

অপরিচ্ছন্ন নগরীর অপবাদ শিগগিরই দূর হবে

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ , ৭:০৮ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ , ৭:০৮ অপরাহ্ণ

ঢাকাসহ দেশের সব নগরীকে নোংরা ও অপচ্ছিন্ন বলে যে অপবাদ দেয়া হয়, তা খুব শিগগিরই দূর করার কথা জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এজিআরডি) মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। শহরের রাস্তাঘাট বা অবকাঠামো নির্মাণ ও সংস্কার কাজ করতে গিয়ে যাতে মানুষের ভোগান্তি না হয় সেদিকেও সজাগ থাকার কথা বলেছেন তিনি। বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) গুলশানের বিচারপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ পার্কে সব সিটি করপোরেশনের জন্য সুইপার মেশিন হস্তান্তর অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন, ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম, দক্ষিণের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, গাজীপুর সিটির মেয়র জাহাঙ্গীর আলম।

তাজুল ইসলাম বলেন, রাস্তা নির্মাণ করছেন, কিন্তু রাস্তার পাশে দুই-তিন মাস ধরে বালু-সিমেন্ট রেখে দিবেন। এগুলো উড়ে মানুষের নাকে-মুখে আসবে। এটা কোনো ব্যবস্থা নয়। আপনারা যেখানে যে কাজ করবেন, এমনভাবে করবেন যেন এ কারণে অন্য কেউ ক্ষতিগ্রস্ত না হয়। আমরা উন্নয়ন চাই, কিন্তু এমন উন্নয়ন চাই না, যা করতে গেলে আমাদের জীবনকে অতিষ্ট করে তুলবে। এ সময় বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করার প্রক্রিয়া নিয়েও সরকার কাজ করছে বলে জানান তিনি।

আতিকুল ইসলাম জানান, ডিএনসিসি এলাকার সড়ক পরিচ্ছন্ন করতে কমপক্ষে ৬০টি সুইপার মেশিন প্রয়োজন। কিন্তু আমাদের আছে ১৪টি মেশিন। নতুন ওয়ার্ড হিসাব করলে সংখ্যাটি আরো কম হবে। রাস্তা পরিষ্কার করতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ বছরে ডিএনসিসির ৩৭ জন পরিচ্ছন্নকর্মী আহত হয়েছেন। আধুনিক যন্ত্রপাতির ব্যবহার বাড়ালে পরিচ্ছন্নকর্মীদের ঝুঁকি কমবে। আমরা রাস্তাঘাট পরিচ্ছন্ন করতে সনাতন থেকে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতির দিকে যাচ্ছি। আমাদের আরো যন্ত্রপাতি দরকার।

ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, প্রতিনিয়ত আমাদেরকে অনেক প্রতিকূলতার মধ্যে কাজ করতে হচ্ছে। সব কাজেই অনেক বাধা আসছে। কিন্তু আমাদের দৃঢ়তা রয়েছে, সংকল্প রয়েছে। আমাদের বিশ্বাস, সব প্রতিকূলতা পেরিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছাবো। প্রাণের ঢাকা, ঐতিহ্যবাহীকে ঢাকাকে আমরা সুন্দর, সচল ও সুশাসিত ঢাকা হিসেবে পরিণত করতে চাই।

প্রসঙ্গত, ইতালির ডুলেভোর তৈরি রোড সুইপার মেশিনে জাপানের কবুতা ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে। মেশিনটি চালাতে প্রতি ঘণ্টায় গড়ে ৪ লিটার ডিজেল খরচ হবে। মেশিনটি ১ টন ময়লা বহন করতে পারবে। রাস্তায় পানি ছিটানোর জন্য এতে রয়েছে ২০০ লিটারের একটি পানির ট্যাংকি। ঢাকার দুই সিটিসহ গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনকে এসব গাড়ির চাবি তুলে দেয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে বাকী সিটি করপোরেশনেও সুইপার মেশিন দেয়া হবে

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়