শেখের বেটি এসেছে দেশ আর পিছিয়ে থাকবেনা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আগের সংবাদ

বিএনপির প্রাথীর প্রচারণায় হামলা আহত ১০

পরের সংবাদ

শেষ হলো ‘বিলাপ’র শুটিং

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০ , ৬:৫৫ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০ , ৬:৫৫ অপরাহ্ণ

হঠাৎ করেই ঢাকা শহর থেকে রহস্যজনকভাবে নিরুদ্দেশ হতে থাকে বেশ কয়েকজন শিশু ও নারী-পুরুষ এবং ঘটতে থাকে কয়েকটি লোমহর্ষক খুনের ঘটনা। পুলিশের স্পেশাল টিম শত চেষ্টা করেও যখন এসব অপরাধের কোনো যোগসূত্র খুঁজে পায় না, তখন চরম অদক্ষ হিসেবে পরিচতি সাব-ইন্সপেক্টর রাহাত সন্ধান পেয়ে যান একটি ভয়ংকর গুপ্তঘাতক চক্রের। এমন এক গল্পের বুনটে নির্মিত হলো ডার্ক থ্রিলার ওয়েব সিরিজ ‘বিলাপ’। এর কাহিনী ও চিত্রনাট্য লিখেছেন সানী সানোয়ার। যৌথভাবে পরিচালনা করেছেন সানী সানোয়ার ও ফয়সাল আহমেদ। প্রোডাকশন হাউজ ‘কপ ক্রিয়েশন’র ব্যানারে নির্মিত এই ওয়েব সিরিজটি খুব শিগগিরই ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ‘সিনেমাটিক’-এ স্ট্রিমিং হবে।
ওয়েব সিরিজে প্রথমবার অভিনয় করলেন শবনম ফারিয়া। এটি তার প্রথম ওয়েব সিরিজ। এমনকি অভিনেতা শরিফুল রাজের সঙ্গে জুটি বেঁধে প্রথমবার কোনো কাজ করা এ অভিনেত্রীর। শবনম ফারিয়া বলেন, ‘আমি কখনো ওয়েব সিরিজে কাজ করিনি। এটার গল্প শুনার পর মনে হয়েছে যে, আমি এই গল্পের পার্ট হতে চাই।’ এছাড়া এই ওয়েব সিরিজে জাকিয়া বারী মম এবং রুনা খানকে দেখা যাবে ব্যতিক্রম দু’টি চরিত্রে। তারা ছাড়াও এ ওয়েব সিরিজে রয়েছেন লুৎফর রহমান জর্জ, খায়রুল বাশার, মাজনুন মিজান, মাসুম বাশার, ইনতেখাব দিনার, জয় রাজ, সমাপ্তি মাসুক, দীপু ইমাম, এহসান রহমান, আশরাফুল আশিষ, পূজা ক্রুজ, নীলাঞ্জনা নীলা, সুমীত সেনগুপ্তসহ অনেকে।
সানী সানোয়ার বলেন, ‘ওয়ার্ল্ড মিডিয়াতে সিনেমার পাশাপাশি ওয়েব সিরিজ একটি গুরুত্বপূর্ণ জায়গা দখল করে নিচ্ছে। গল্প বলার নান্দনিক ঢং এবং নির্মাণ-কৌশলে সিনেমাটিক ছাপ থাকার কারণে ওয়েব সিরিজের প্রতি দর্শকদের আগ্রহ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই দর্শক-আগ্রহ এবং মার্কেট চাহিদার উপর ভিত্তি করে ‘সিনেমাটিক’ নামের দেশীয় একটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মের জন্য আমরা ‘বিলাপ’ ওয়েব সিরিজটি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিই। এখন থেকে ‘কপ ক্রিয়েশন’ নিয়মিতভাবে সিনেমার পাশাপাশি ওয়েব সিরিজও নির্মাণ করবে।’ ওয়েব সিরিজের অপর পরিচালক ফয়সাল আহমেদ বলেন, ‘এটি ওয়েব ছিল, না সিনেমা ছিল তা আমি এখনো নিশ্চিত না। কারণ কাহিনী, চিত্রনাট্য, অ্যারেঞ্জমেন্টের বিবেচনায় এটি একটি খন্ডিত সিনেমা হিসেবেই আমরা নির্মাণ করেছি, যার মাঝে দর্শকবৃন্দ সিনেমাটিক আমেজ খুঁজে পাবে।’
উল্লেখ্য, ওয়েব সিরিজটিতে সিনেমাটোগ্রাফার হিসেবে কাজ করেছেন মিছিল সাহা এবং স্ক্রিপ্ট সুপারভাইজার হিসেবে ছিলেন হাসানাত বিন মতিন। মিঠুন দেবনাথের তত্ত্বাবধানে এখন সিরিজটি সম্পাদনার টেবিলে। প্রযোজনা করেছে টার্ন কমিউনিকেশন্স, যা লাইভ টেকনোলজিসের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান।

ডিসি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়