বিকল্প দেশের পেঁয়াজ এলো ৩১৫ টন

আগের সংবাদ

হালদায় অভিযানে ইঞ্জিন চালিত নৌকা ধ্বংস

পরের সংবাদ

করোনা আক্রান্ত হয়েও অফিসে!

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০ , ৬:২৫ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০ , ৬:৪২ অপরাহ্ণ

নেত্রকোণার মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইপিআই টেকনিশিয়ান শামছুদ্দিন করোনায় আক্রান্তের পজেটিভ রিপোর্ট পেয়েও অন্যান্য দিনের মতো মঙ্গলবার অফিস করছেন। এতে সেবা নিতে আসা রোগী ও হাসপাতাল স্টাফদের মধ্যে সৃষ্টি হয়েছে আতংক। তবে তার অফিস করার বিষয়টি জানেন না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

জানা যায়, গত ২০ সেপ্টেম্বর মদন হাসপাতালের ইপিআই টেকনিশিয়ান শামছুদ্দিন করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। ২২ সেপ্টেম্বর তার করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে। কিন্তু তিনি এর গুরুত্ব না দিয়ে নিয়মিত অফিস করে যাচ্ছেন। মঙ্গলবার দুপুরে মদন হাসপাতালে সরজমিন শামছুদ্দিনের অফিস কক্ষে গেলে, দেখা যায় দাপ্তরিক কাজে ব্যস্ত সে। কোনো রকম স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই ৫/৬ জন অফিস স্টাফ নিয়ে আলোচনা করছেন।

করোনার প্রজেটিভ নিয়ে অফিস করছেন এ ব্যাপারে টেকনিশিয়ান শামছুদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, গত ২০ সেপ্টেম্বর করোনা পরিক্ষার জন্য নমুনা দিলে ২২ সেপ্টেম্বর রিপোর্টে করোনা প্রজেটিভ আসে। আজ দ্বিতীয় বার নমুনা দেয়ার জন্য অফিসে এসেছি। স্বাস্থ্যবিধি না মেনে অফিস করছেন বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি সদুত্তর না দিয়ে এড়িয়ে যান। এ সময় সাংবাদিকদের দেখতে পেয়ে অন্যান্য স্টাফরা তার কক্ষ থেকে বের হয়ে যায়।

এ বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার সাইফুল্লাহ সজীব বলেন, ইপিআই টেকনিশিয়ান শামছুদ্দিন করোনায় আক্রান্ত। তবে তার অফিস করার বিষয়ে আমি অবগত ছিলাম না। এখনেই জানতে পারলাম সে অফিসে আছে। আজকেই শোকজ করে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান। এ পর্যন্ত মদন হাসপাতালে কর্মকর্তা কর্মচারীসহ ১৪ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছিল। তবে সবাই এখন সুস্থ্ আছেন।

ডিসি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়