চীনে কয়লাখনিতে ১৬ শ্রমিকের মৃত্যু

আগের সংবাদ

আদালতে ধর্ষণের ঘটনার বর্ণনা দিলেন ভুক্তভোগী

পরের সংবাদ

সাহেদ স্টাইলে পালানোর চেষ্টা সাইফুর-অর্জুনের

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০ , ৫:৩০ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০ , ১০:৫৫ পূর্বাহ্ণ

সাহেদ স্টাইলে ভারতে পাড়ি জমানোর চেষ্টা করেছিল সিলেটের এমসি কলেজে স্বামীর কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়ে গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় প্রধান আসামি সাইফুর রহমানক ও অর্জুন লস্কর। জানা গেছে, এ ঘটনা আলোচিত হওয়ার পর পালিয়ে আত্মগোপন করার চেষ্টা করেন সাইফুর ও মামলাভুক্ত তার অপর সহযোগীরা। শখের দাড়ি কেটে এলাকা ছাড়ার ফন্দি করে সাইফুর। অন্যদিকে, ভারতে চলে যাওয়ার ধান্দায় ছিলেন অর্জুন লস্কর। তবে দু’জনকেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জানা যায়, রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) ভোরে সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক থানাধীন সীমান্তবর্তী এলাকা খেয়াঘাট থেকে গোপন তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ সাইফুরকে গ্রেপ্তার পুলিশ। আর সুনামগঞ্জ থেকে ও ৪ নম্বর আসামি অর্জুন লস্করকে হবিগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মহানগরের শাহপরাণ থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।

তদন্ত সংশ্লিষ্ট পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, সাইফুর গ্রেপ্তার এড়াতে সাহেদ স্টাইল অবলম্বন করেছে, গ্রেপ্তার থেকে বাঁচতে তার মুখের দাঁড়ি কেটে ফেলে। সে সীমান্ত পথ ব্যবহার করে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। গ্রেপ্তারের পর সাইফুর পুলিশের কাছে ঘটনার বিস্তারিত বর্ণনা দেয়। এমসি কলেজের একাধিক শিক্ষার্থী জানান, সাইফুর এমসি কলেজের ইংরেজি বিভাগ থেকে মাস্টার্স পরীক্ষা দিয়েছে। তার ইভটিজিং ও হয়রানির কারণে এমসি কলেজ থেকে অনেক মেয়ে অন্য কলেজে চলে যায়। এমনকি কলেজে সাইফুরসহ তার সহযোগীরা সাধারণ শিক্ষার্থীদের জিম্মি করে চাঁদাবাজিও করে আসছে।

এদিকে ঘটনার অন্যতম আসামি অর্জুন লস্করকে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার পথে ভোর ৬টার দিকে হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার মনতলা এলাকার দুর্বলপুর গ্রামে পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হন। বিষয়টি নিশ্চিত করে মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হোসেন জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে অর্জুন মাধবপুর উপজেলার মনতলা সীমান্ত দিয়ে ভারত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিল। গ্রেপ্তারের পর তাকে সিলেটে নিয়ে গেছে সিলেট জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়