কুড়িগ্রামে রেকর্ড বৃষ্টি, পঞ্চম দফা বন্যার শঙ্কা

আগের সংবাদ

ফলের উন্নত চারা কলম সরবরাহের আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর

পরের সংবাদ

দুই বিক্রেতা গ্রেপ্তার

সংগ্রহ কুমিল্লা সীমান্তে, বিক্রি ঢাকায়

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০ , ৮:৩৫ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০ , ৮:৩৯ অপরাহ্ণ

হাসান আর সুমন বিয়ার-ফেনসিডিলের ব্যবসায়ী। একই সঙ্গে খুচরা ও পাইকারী বিক্রেতা। রাজধানীতে বিভিন্ন এলাকায় তারা বিয়ার আর ফেনসিডিল বিক্রি করতো। জাকির নামে তাদের একজন সহযোগীও রয়েছে। তারা তিনজনই মাদক সংগ্রহ করতো কুমিল্লা সীমান্ত থেকে। সেখান থেকে এনে বিক্রি করতো রাজধানীতে।

হাসান, সুমন আর জাকিরের মাদক ব্যবসার পৃষ্ঠপোষক আবদুল্লাহ আলম মামুন নামে একজন। যার পৃষ্ঠপোষকতায় তারা রাজধানীতে মাদক ব্যবসা করতো। এর মধ্যে গেল বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) হাসান আর সুমন রাজধানীর কদমতলীর মাতুয়াইল থেকে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সাইবার এন্ড স্পেশাল বিভাগের জালে ধরা পড়েছে।

গ্রেপ্তারের সময় তাদের কাছ থেকে ৪০০ বোতল ফেন্সিডিল ও ১২ ক্যান বিয়ার উদ্ধার করে ডিবি পুলিশ। এ ঘটনায় গ্রেপ্তার হাসান ও সুমনসহ পলাতক জাকির তাদের পৃষ্ঠপোষক মামুনের নামে কদমতলী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ডিবির সাইবার এন্ড স্পেশাল বিভাগের ওয়েব বেইজড ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন টিমের প্রধান এডিসি আশরাফুল্লাহ জানান, আবদুল্লাহ আল মামুন নামে মাদক ব্যবসায়ীর পৃষ্টপোষকতায় হাসান, সুমন ও জাকির কুমিল্লার সীমান্ত এলাকা থেকে বিয়ার ও ফেনসিডিল সংগ্রহ করে রাজধানীতে আনতো। এরপর সেগুলো তারা রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় খুচরা ও পাইকারি মূল্যে বিক্রি করতো।

এডিসি আশরাফুল্লাহ আরো জানান, পলাতকদের ধরতে অভিযান চলছে এবং গ্রেপ্তার হাসান ও পলাতক মামুনের বিরুদ্ধে একাধিক মামলার তথ্য পাওয়া গেছে।

এনএম

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়