ইব্রা ঝলকে জিতল এসি মিলান

আগের সংবাদ

শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপনে ঢাকায় দাবার আসর

পরের সংবাদ

জেকোভিচ-হালেপ ইতালিয়ান ওপেনের রাজা-রানী

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০ , ৮:৪৬ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০ , ৮:৪৭ অপরাহ্ণ

রেকর্ড গড়ে ইতালিয়ান ওপেনের পুরুষ এককের শিরোপা জিতেছেন নোভাক জেকোভিচ। অন্যদিকে, নারী এককের শিরোপা জিতেছেন রোমানিয়ার সিমোনা হালেপ। প্রথমবারের মতো ইতালিয়ান ওপেনের নতুন রানী হয়েছেন হালেপ। শিরোপা জয়ের মধ্য দিয়ে ফরাসি ওপেনের প্রস্তুতিটা দারুণ হলো মেয়েদের শীর্ষ বাছাই রোমানিয়ান এ তারকার। রোমের ফাইনালে গত সোমবার কারোলিনা প্লিসকোভা চোট নিয়ে সরে দাঁড়ালে শিরোপা নিশ্চিত হয়ে যায় হালেপের। তখন ৬-০, ২-১ গেমে এগিয়েছিলেন তিনি। এর আগে ২০১৭ ও ২০১৮ সালের ফাইনালে হেরেছিলেন হালেপ।

রোমের ফাইনালে ২০ মিনিটের প্রথম সেটের পর চিকিৎসা নেন গতবারের চ্যাম্পিয়ন প্লিসকোভা। তবে খেলা চালিয়ে যেতে পারেননি চেক রিপাবলিকের এই খেলোয়াড়। ২০১৮ সালের ফরাসি ওপেন চ্যাম্পিয়ন হালেপ করোনা ভাইরাস বিরতির আগেপরে এই নিয়ে টানা ১৪ ম্যাচ জিতলেন। গতবারের চ্যাম্পিয়ন অ্যাশলি বার্টির অনুপস্থিতিতে শীর্ষ বাছাই হিসেবে আগামী রবিবার প্যারিসে শুরু হতে যাওয়া ফরাসি ওপেনে খেলবেন হালেপ। কোভিড-১৯ মহামারির পরিস্থিতিতে এই গ্র্যান্ডস্ল্যাম প্রতিযোগিতাটি থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন বার্টি।

পুরুষদের এককের ফাইনালে আর্জেন্টিনার দিয়েগো শয়ার্টসমানকে হারিয়ে ইতালিয়ান ওপেনের শিরোপা জিতেছেন বিশ্বের এক নম্বর টেনিস খেলোয়াড় নোভাক জেকোভিচ। এতে রাফায়েল নাদালকে পেছনে ফেলে সবচেয়ে বেশি এটিপি মাস্টার্স শিরোপা জয়ের রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন এই সার্বিয়ান তারকা। রোমের ফাইনালে সোমবার ৭-৫, ৬-৩ গেমে জেতেন ৩৩ বছর বয়সি জেকোভিচ। ইতালিয়ান ওপেনে এটি তার পঞ্চম এবং ৩৬তম এটিপি মাস্টার্স শিরোপা।

গত মাসে ওয়েস্টার্ন এন্ড সাউদার্ন ওপেনের শিরোপা জিতে নাদালের আগের রেকর্ড স্পর্শ করেছিলেন তিনি। এবার ছাড়িয়ে গেলেন স্প্যানিশ তারকাকে। ২৮টি এটিপি মাস্টার্স শিরোপা জিতে তালিকায় তিন নম্বরে আছেন সুইস তারকা রজার ফেদেরার। মেজাজ হারিয়ে লাইন জাজের গায়ে বল মেরে ইউএস ওপেন থেকে ডিসকোয়ালিফাইড হওয়ার পর এটিই ছিল জেকোভিচের প্রথম টুর্নামেন্ট। শিরোপা জিতে আগামী রবিবার প্যারিসে শুরু হতে যাওয়া ফরাসি ওপেনের প্রস্তুতি সারলেন দারুণভাবে। সব মিলে এটি জেকোভিচের ক্যারিয়ারের ৮১তম এবং এই বছরে চতুর্থ শিরোপা।

ইতালিয়ান ওপেনে দশম শিরোপা জিততে এসেছিলেন রাফায়েল নাদাল। কিন্তু অপ্রত্যাশিতভাবে বিদায় নেন কোয়ার্টার ফাইনালে। রজার ফেদেরার আসেননি, আর নাদালের বিদায় মানে নোভাক জেকোভিচ নিরঙ্কুশভাবেই কোনো টুর্নামেন্টের ফেভারিট হয়ে যান। প্রত্যাশিতভাবেই জেকোভিচ চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন ইতালিয়ান ওপেনে। করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘ প্রায় ছয় মাস পর ইউএস ওপেন দিয়ে আন্তর্জাতিক টেনিস ফিরেছে গত মাসে। তবে বছরের অন্যতম এই গ্র্যান্ডস্ল্যাম গ্যালারিতে বসে দেখার সুযোগ হয়নি দর্শকের। খেলা হয়েছে শূন্য গ্যালারির সামনে। রোমেই আন্তর্জাতিক টেনিস প্রথম দর্শক পেল, শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে হাজারখানেক দর্শক দেখেছে ফাইনাল। ফাইনাল শেষে আনন্দে উদ্বেল জেকোভিচকে বলেন, আমি ভীষণ খুশি। এটা ছিল দুর্দান্ত একটি সপ্তাহ, চ্যালেঞ্জিং একটি সপ্তাহ। এই সপ্তাহে আমার মনে হয় না আমি খুব ভালো টেনিস খেলেছি, কিন্তু ব্যবধান গড়ে ওঠার মুহূর্তে সেরা টেনিসটাই খেলতে পেরেছি।

জেকোভিচের শুরুটা হয়েছিল বাজে, প্রথম সেটে পিছিয়ে পড়েন ০-৩ গেমে। সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে ৭-৫ জিতে নেন প্রথম সেট। দ্বিতীয় সেটেও হেরে বসেছিলেন প্রথম গেম। ইউএস ওপেনের হট ফেভারিট ছিলেন তিনি। তাকে থামানোর মতো বড় কোনো নাম বাকি ছিল না টুর্নামেন্টে। কিন্তু নিজেই নিজের রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে, বল মেরে বসেন লাইন রেফারির গায়ে। ফলে ইউএস ওপেন থেকে বহিষ্কার করা হয় নোভাক জেকোভিচকে। ফলে হাতছাড়া হয় একটি গ্র্যান্ডস্ল্যাম শিরোপা। সেই টুর্নামেন্টে না পারলেও মাসখানেকের মধ্যে এটিপি মাস্টার্সের শিরোপা ঠিকই জিতেছেন জেকোভিচ।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়