নিরাপদ সবজি গ্রামে বিষমুক্ত সবজি উৎপাদনে সাফল্য

আগের সংবাদ

বাসের ত্রিমুখী সংঘর্ষে সড়কে প্রাণ হারাল ৪ জন

পরের সংবাদ

ভারতে আটকা পড়া ১৬৫ ট্রাকে ‘পচছে’ পেঁয়াজ

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২০ , ৫:৫২ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২০ , ৯:২৫ অপরাহ্ণ

ঘোষণা না দিয়েই পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করায় ভারতে আটকা পড়েছে সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর ব্যবহারকারী ব্যবসায়ীদের ১৬৫ ট্রাক পেঁয়াজ। গত চার দিনে ওই পিয়াজ নষ্ট হতে যাচ্ছে। প্রতি ট্রাক পিয়াজের মূল্য ১০ লাখ টাকা। আশঙ্কা করা হচ্ছে, এতে প্রতি ট্রাকে ব্যবসায়ীদের পাঁচ থেকে ছয় লাখ টাকার ক্ষতি হবে। সব মিলিয়ে ব্যবসায়ীদের ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়াবে নয় কোটি ৯০ লাখ টাকারও বেশি।

গত ১৪ই সেপ্টেম্বর থেকে এসব ট্রাক ভারতে আটকে আছে। কবে নাগাদ এসব পিয়াজ দেশে আসতে পারবে তার জানেন না ব্যবসায়ীরা। ভোমরা স্থলবন্দরের ব্যবসায়ীদের সংগঠন ভোমরা সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম সাংবাদিকদের জানান, পিয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষণার আগেই ১৬৫ ট্রাক পিয়াজ ভারত থেকে এলসি করা ছিল ভোমরা বন্দরের ব্যবসায়ীদের। গত সোমবার হঠাৎ করেই রপ্তানি বন্ধ ঘোষণা করায় বিপাকে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা।

ভোমরা স্থলবন্দরের ব্যবসায়ীদের সংগঠন ভোমরা সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম জানান, গত সোমবার ভারত হঠাৎ পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ ঘোষণা করে। কিন্তু ওই ঘোষণার আগেই ১৬৫ ট্রাক পেঁয়াজ ভারত থেকে এলসি করা ছিল ভোমরা বন্দরের ব্যবসায়ীদের। এসব পেঁয়াজের ট্রাকগুলোর ডকুমেন্ট পাস করা রয়েছে। জেনেছি আগের এলসি করা পেঁয়াজের ট্রাকগুলো তারা ছেড়ে দেবে। তবে এখনও পর্যন্ত ছাড়েনি বা কোনো সুরহা হয়নি। তাছাড়া ভারতের পেঁয়াজ রফতানি মূল্য নির্ধারণকারী প্রতিষ্ঠান ন্যাপেট ৩০০ ডলারের পরিবর্তে প্রতিটন পেঁয়াজের রফতানি মূল্য নির্ধারণ করেছে ৭০০ ডলার।

পচে যাচ্ছে পেঁয়াজ

তিনি বলেন, আটকা পড়া প্রতি ট্রাক পেঁয়াজের মূল্য ১০ লাখ টাকা। গত সোমবার থেকে ভোমরা বন্দরের বিপরীতে ভারতের ঘোজাডাঙা সীমান্তে পেঁয়াজভর্তি ট্রাকগুলো আটকে থাকায় পেঁয়াজ নষ্ট হতে শুরু করেছে। ইতোমধ্যে অর্ধেক পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে গেছে। তাছাড়া আগামী রোববার বা সোমবার ট্রাকগুলো দেশে ঢুকলেও অর্ধেকের বেশি পেঁয়াজ আর খাওয়ার উপযুক্ত থাকবে না। এতে প্রতি ট্রাকে ব্যবসায়ীদের ৫-৬ লাখ টাকার লোকসান হবে। সব মিলিয়ে ব্যবসায়ীদের ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়াবে ৯ কোটি ৯০ লাখ টাকারও বেশি।

ভোমরা বন্দরের রাজস্ব কর্মকর্তা মহসিন হোসেন জানান, কত ট্রাক পেঁয়াজ ভারতে আটকা পড়েছে তার সঠিক হিসাব আমার জানা নেই। পেঁয়াজ পচনশীল দ্রব্য। পেঁয়াজের ট্রাক আটকা পড়ে থাকলে সেগুলো নষ্ট হয়ে যায়। এতে আমদানিকারক ব্যবসায়ীরা আর্থিকভাবে লোকসানের মুখে পড়বেন

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়