কুড়িগ্রামে পরিচ্ছন্নতা কর্মী দিয়ে চলছে চিকিৎসা

আগের সংবাদ

বিয়ের কথা লুকোতে চাননি পুনম দম্পতি

পরের সংবাদ

অনুশীলনে বিদেশি কোচ পাচ্ছে টাইগাররা

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০ , ১০:০৫ পূর্বাহ্ণ

লঙ্কানদের বিপক্ষে ৩ ম্যাচ সিরিজের টেস্ট সামনে রেখে ১৯ জুলাই থেকে কোচ ছাড়া ব্যক্তিগত অনুশীলন করে আসছেন টাইগার ক্রিকেটাররা। লঙ্কা সিরিজকে সামনে রেখে দলের সঙ্গে যোগ দিতে ৬ সেপ্টেম্বর রাতে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ঢাকায় পৌঁছেছেন প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো ও ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক। ৭ সেপ্টেম্বর ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে কর্মস্থলে ফিরেছেন পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসনও। সরকারি বিধিমোতাবেক এই ৩ জনই রয়েছেন ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে।

কিন্তু শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজকে সামনে রেখে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বরাবর বিদেশি কোচিং স্টাফদের কোয়ারেন্টাইনের সময় কমানোর আবেদন করেছিল লাল-সবুজের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ প্রশাসন এবং তাদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তারা মৌখিকভাবে ইতিবাচক সাড়াও দিয়েছে। গতকাল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে লিখিত অনুমতি পেয়েছে বিসিবি। ফলে আজ থেকে বিদেশি কোচরা টাইগারদের নিয়ে মাঠের কাজ শুরু করতে আর বাধা রইল না। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনুমতিপত্রের খবর নিশ্চিত করেছেন বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী। স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩ ম্যাচ সিরিজের টেস্ট খেলতে এ মাসের ২৭ তারিখে দ্বীপ রাষ্ট্রটি সফরের কথা রয়েছে টিম বাংলাদেশের।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সাদা পোশাকে অভিষেক হয় মেহেদী হাসান মিরাজের। অভিষেকেই ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের দারুণ পরীক্ষা নিয়ে বড় মঞ্চে নিজের প্রতিভার জানান দেন। কিন্তু বাংলাদেশের সর্বশেষ ৪টি টেস্টে মিরাজকে মিরাজসুলভ পাওয়া যায়নি, কেমন যেন নিষ্প্রভ ছিলেন। মিরাজের জন্যও এটা ছিল হতাশার। হতাশার ওই দিনগুলো পেছনে ফেলে ছন্দে ফিরতে মরিয়া ২৫ বছর বয়সি স্পিনিং অলরাউন্ডার। গতকাল মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে অনুশীলন শেষে এমনটাই জানিয়েছেন তিনি। ২২ টেস্টে ৯০ উইকেট নিয়েছেন মিরাজ। যার ২১টি এসেছে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম দুই টেস্টেই। কিন্তু শেষ ৪ টেস্টে মিরাজ মাত্র ৬ উইকেট নিয়েছেন। এমন পারফরমেন্সে মিরাজ নিজেই চিন্তিত ছিলেন। নিজের উপলব্ধি থেকেই কাজও করেছিলেন। কিন্তু লকডাউনে তার পরিকল্পনায় ব্যাঘাত ঘটেছে। যদিও আশা, খুব দ্রুতই নিজের চেনা ছন্দে ফিরতে পারবেন।

মেহেদী হাসান মিরাজ বলেছেন, ‘আমি চেষ্টা করছি যতটা সম্ভব বোলিংটা আগে যেখানে ছিল সেখানে আনার। আমার কোচের সঙ্গেও কথা বলেছি। তিনিও আমাকে পরামর্শ দিয়েছেন কীভাবে কী করলে ভালো করা সম্ভব। আমার অভিষেক থেকে টানা ৩ বছর ভালোই গেছে। কিন্তু শেষ ২-৩টা সিরিজ যেরকম চেয়েছি, সেরকম হয়নি। সামনে খেলা শুরু হয়ে যাচ্ছে, অনুশীলন শুরু হয়েছে, যতটা সম্ভব নিজেকে গুছিয়ে নিয়ে ভালো করার চেষ্টা করব এবং আগে যেরকম বোলিংটা করতাম সেই ছন্দে ফিরে আসতে চাই।’

দেশের করোনা পরিস্থিতি কঠিন থাকার সময় অনেক ক্রিকেটারই গ্রামে থেকে নিজ জেলা বা বিভাগীয় স্টেডিয়ামে অনুশীলন করেছেন। মিরাজও তাদের একজন। খুলনায় অনেকদিন অনুশীলন করেছেন তিনি। মিরাজ বললেন, ‘এর আগে খুলনাতে বোলিং করেছি এবং অনুশীলন করেছি। বেশ কয়েকদিন হলো মিরপুরে শুরু করেছি। একটু অস্বস্তি আছে, বোলিং হয়তো ভালো হচ্ছে না যেটা আমি চাচ্ছি। চেষ্টা করছি যত দ্রæত সম্ভব আমার নিজের জায়গায় বোলিংটা আনার জন্য।’

২২ টেস্টের মধ্যে ১১ টেস্ট দেশের বাইরে খেলেছেন মিরাজ। দেশে খেলা বাকি ১১ টেস্টে ৬১ উইকেট পেলেও দেশের বাইরে তার উইকেট সংখ্যা ২৯টি। মিরাজের জন্য তাই দেশের বাইরের চ্যালেঞ্জটাই বেশি। আগামী অক্টোবরের শেষ সপ্তাহ থেকে শুরু শ্রীলঙ্কা সিরিজ নিয়ে তাই বাড়তি ভাবনা মিরাজের।

এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘বিদেশের মাটিতে আমাদের স্পিনারদের জন্য চ্যালেঞ্জ থাকে। বিশেষ করে আমার জন্য বেশি। ওখানে কীভাবে কী করলে ভালো হয় সেসব নিয়ে কোচ ড্যানিয়েল ভেট্টোরির সঙ্গে আলাপ করেছি। সেভাবেই কাজ করছি। আশা করি, সামনের দিনগুলোতে তার সঙ্গে কাজ করতে পারব।’

এসআর