১২ সেপ্টেম্বর থেকে কাউন্টারেও বিক্রি হবে টিকেট

আগের সংবাদ

শিগগিরই বাংলাদেশ-ভারত দ্বিপাক্ষিক বৈঠক

পরের সংবাদ

ফের ফেভারিটের তকমার মান রাখলেন ওসাকা

খেলা ডেস্ক

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ৭, ২০২০ , ৮:৪২ অপরাহ্ণ

২০২০ সালের ইউএস ওপেনে মেয়েদের শিরোপা জয় করবেন নাওমি ওসাকা। আসর শুরু হওয়ার আগেই তাকে ফেভারিটের তকমা দিয়ে এমন কথা বলেছিলেন অনেকে। আজ রাউন্ড ষোলোতে সেই ফেভারিটের তকমার মান রেখেছেন আমেরিকায় বসবাসকারী এই জাপানিজ টেনিসার। গতকাল তিনি এস্তোনিয়ার টেনিসার এনেট কনতাভেতের বিপক্ষে সরাসরি সেটে জয় তুলে নেন। বলতে গেলে ওসাকার বিপক্ষে কনতাভেত কোনো পাত্তাই পাননি। ওসাকার বিপক্ষে তিনি হারেন ৬-৩, ৬-২ সেটে। ১ ঘণ্টার চেয়ে একটু বেশি সময় নিয়ে তিনি হারেন। আর এতে করে কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নেন ওসাকা।

অবশ্য কনতাভেত ওসাকার বিপক্ষে আরো ৩ বার মুখোমুখি হয়েও একবারও জিততে পারেননি। এই ম্যাচটিতে মুখোমুখি হওয়ার আগে তারা একে অপরের বিপক্ষে খেলেছিল সাউদার্ন ও ওয়েস্টার্ন ওপেনে। সেখানেও ওসাকার বিপক্ষে হেরেছিল কনতাভেত। অবশ্য সেবার ওসাকার মনে একটু কাঁপন ধরিয়ে দিতে সমর্থ হয়েছিলেন তিনি।

এদিকে এবারের আসরে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠার মাধ্যমে নিজের ক্যারিয়ারে ইউএস ওপেনে এ নিয়ে দ্বিতীয় বারের মতো কোয়ার্টার ফাইনালের টিকেট পেলেন ওসাকা। ২০১৮ সালে তিনি কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমিফাইনালের বাধা পার করে ফাইনালে পৌঁছে গিয়েছিলেন। এমনকি সেবার তিনি শেষ পর্যন্ত শিরোপা জয় করে তবেই বাড়ি ফিরেছিলেন।

এদিন মেয়েদের এককে আরো জয় তুলে নিয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেন আমেরিকান টেনিসার সেলবি রজার্স। তিনি খেলেন চেক রিপাবলিকের টেনিসার পেত্রা কেভিতোভার বিপক্ষে। তবে পেত্রার বিপক্ষে ম্যাচটিতে জয় পেতে রীতিমতো ঘাম ঝরেছে সেলবি রজার্সের। দুজনই সমানে সমানে লড়াই করেছেন। প্রথম সেটেই দুজন তাদের শক্তিমত্তা দেখান। তবে এই সেটটিতে শেষ হাসি হাসেন সেলবি রজার্স।

প্রথম সেটটিতে তিনি জেতেন ৬-৭ (৭-৫) সেটে। তবে দ্বিতীয় সেটটিতে পেত্রার কাছে তিনি ৬-৩ ব্যবধানে হেরে যান। এরপর তৃতীয় সেটটিতেও দুজনের মধ্যে সেয়ানে সেয়ানে লড়াই হয়। এই সেটটিতেও শেষ হাসি হাসেন সেলবি। ফলে পেত্রাকে পেছনে ফেলে তিনি কোয়ার্টার ফাইনালের টিকেট বাগিয়ে নেন। এই সেটটিতে পেত্রাকে তিনি হারান ৭-৬ (৮-৬) ব্যবধানে।

অন্যদিকে আজ ছেলেদের একক থেকে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেন স্পেনের টেনিসার পাবলো কারেনো। তিনি মুখোমুখি হন নোভাক জকোভিচের। তবে এই ম্যাচটিতে ফাউল করায় জকোভিচকে ডিসকোয়ালিফাইড ঘোষণা করেন। ফলে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে যান পাবলো। এছাড়া ছেলেদের একক থেকে এদিন কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেন ক্রোয়েশিয়ার বর্না কোরিক। তিনি অস্ট্রেলিয়ান টেনিসার জর্ডান থমসনকে ৫-৭, ৬-১, ৬-৩ সেটে হারান।

এমএইচ