খোঁচামারা কথা, অতঃপর চাকুমেরে হত্যা!

আগের সংবাদ

নানা জল্পনা শেষে ফের সভাপতি সোনিয়া

পরের সংবাদ

ঘরবন্দী জেলেরা ফিরছে সাগরে

প্রকাশিত: আগস্ট ২৪, ২০২০ , ৮:৫৫ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ২৪, ২০২০ , ৯:৪৬ অপরাহ্ণ

দক্ষিণাঞ্চলের দ্বীপ জেলা ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায় টানা ১২ দিন ধরে বৃষ্টি। এজন্য ঘরবন্দী জেলেরা যেতে পাড়েনি নদী ও সাগরে। সোমবার (২৪ আগস্ট) থেকে প্রস্তুতি নিচ্ছে শতশত জেলেরা। ইতোমধ্যে ট্রলার নিয়ে ঘাট ছাড়ছে জেলেরা। একাধিক জেলে বলেন, প্রচুর বৃষ্টিপাতের জন্য নদীতে যেতে পাড়িনি, তবে আজ থেকে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছি। এর আগে তারা কর্মহীন ছিলেন।

জেলেরা জানান, টানা ১০/১২ দিন কর্মহীন হয়ে ঘরবন্দী থাকলেও কোনো সহায়তা পাননি উপজেলা প্রশাসন। স্থানীয় মাদ্রাজ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা জেলে মো. ইব্রাহিম জানান, ইউপি সদস্য কার্ড করার জন্য তথ্য নিলেও জেলে কার্ড ও কোনো সহায়তা পাননি।

উপজেলার মাদ্রাজ বেতুয়া নতুন স্লুইসঘাট, পাঁচ কপাট, হাজারীগঞ্জ, মাইনুদ্দিন ঘাট, সামরাজ মৎস ঘাট ঘুরে দেখা যায়, ভারী বর্ষণে ঘরবন্দী থাকা জেলেরা ট্রলারে বরফ, ডিজেল ও চাল, ডাল ভর্তি করে নদী ও সাগরে ফিরে যাচ্ছে ইলিশ শিকারে। তবে একাধিক জেলে ও মৎস ব্যবসায়ীরা জানান, জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে ইলিশ মৌসুম হওয়া সত্বেও নদীতে আগের মতো ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে না।

ছবি: এআর সোহেব চৌধুরী

সামরাজ মৎস ঘাটের ব্যবসায়ী বলেন, নৌ- ট্রলার ও ফেরি যোগাযোগ বন্ধ থাকায় ঢাকা, চট্টগ্রামে ইলিশের চালান পাঠাতে না পারায় ওই ইলিশ মাছ স্থানীয় বাজারে সঠিক দাম না পাওয়ায় খুব লোকসানে পড়তে হয়েছে। বর্তমানে নদী ও সাগরে খুব বেশি ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে না।

এ বিষয়ে উপজেলা মৎস কর্মকর্তা মারুফ হোসেন মিনার বলেন, দক্ষিণাঞ্চলে দীর্ঘ ১০/১২ বছরের ভিতর এমন ধারাবাহিক বৃষ্টি আর কখনোও হয়নি। বৃষ্টি শেষে নদীতে জোয়ার বেশি এবং স্রোত কম থাকায় জেলেরা নদী ও সাগরে যাওয়া শুরু করেছে। তবে ইলিশ মৌসুম হলেও বর্তমানে ইলিশ একটু কম পাওয়া যাচ্ছে। তবে খুব শিগগিরই চরফ্যাশন উপজেলা থেকে প্রচুর ইলিশ মাছ আমরা রপ্তানি করবো বলে আশা করছি।

উপজেলা জলবায়ু ফোরামের সভাপতি এম আবু সিদ্দিক বলেন, বৈশ্বিক উষ্ণতা বেড়ে যাওয়ার ফলে জলবায়ুগত কারণে নদীতে ইলিশের অভয় আশ্রম বলতে এখন আর কিছুই নেই। শুধু ইলিশ মাছই নয় পরিবেশগত ভাবে জীব বৈচিত্র্যই আজ হুমকির মুখে।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়